বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ধাপে ধাপে জরিমানা নেবে ট্রাফিক পুলিশ  » «   আগামীকাল থেকে আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে ওয়াজ মাহফিল শুরু  » «   ঘরের ছেলে ঘরে ফিরেছে: ইনাম চৌধুরী প্রসঙ্গে মিসবাহ সিরাজ  » «   উল্টো আ’লীগ থেকে বিএনপিতে আসার অবস্থা: মির্জা ফখরুল  » «   এবার তাজমন্দিরে রূপান্তরিত হচ্ছে আগ্রার তাজমহল  » «   বান্দরকে লাই দিলে গাছের মাথায় ওঠে : রাঙ্গাকে ফিরোজ রশীদ  » «   আবরার হত্যায় ২৫ জনকে আসামি করে চার্জশিট জমা  » «   ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সব ঘরে বিদ্যুৎ: প্রধানমন্ত্রী  » «   সরকারবিরোধী হলে ৩০ ডিসেম্বরের পরই রাস্তায় নামতাম : ভিপি নুর  » «   আজ ৭ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সিধুকে নিয়ে করা ইমরান খানের মন্তব্য ভাইরাল  » «   পায়ের ওপর দিয়ে বাস, মৃত্যুর কাছে হার মানলেন সেই নারী  » «   পুরোনো বগিতে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চলছিল উদয়ন  » «   ট্রেন দুর্ঘটনা: লাশ হয়ে বাড়ি ফিরছেন চাঁদপুরের দম্পতি  » «   ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১০ জনের পরিচয় মিলেছে  » «  

ডেঙ্গু আক্রান্ত পথশিশুর ঠাঁই হলো না সোহরাওয়ার্দীতে!



নিউজ ডেস্ক:: ডেঙ্গু আক্রান্ত ৭ বছরের এক পথশিশুকে ভর্তি না করার অভিযোগ উঠেছে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার গভীর রাতে হাসপাতালে নেওয়া হলে পরদিন রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টে ডেঙ্গু ধরা পড়লেও হাসপাতালে ভর্তি না করায় শিশুটি গাবতলী বাস টার্মিনালেই পড়ে থাকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা।

বিষয়টি সময় সংবাদের নজরে আসলে হাসপাতালে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে প্রতিবেদক ও চিত্র সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করেন কয়েকজন কর্তব্যরত চিকিৎসক। প্রচণ্ড জ্বর নিয়ে মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার (৩১ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত গাবতলী বাস টার্মিনালে পড়ে থাকে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৭ বছরের পথশিশু নাহিদ।

অন্য পথশিশু ও টার্মিনালের এক শ্রমিক মঙ্গলবার রাতে শিশুটিকে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিলে রক্ত পরীক্ষা করানোর পর টার্মিনালে নিয়ে যায়। তাদের অভিযোগ পরদিন রিপোর্ট সংগ্রহের পর শিশুটিকে হাসপাতালে নেওয়া হলেও ভর্তি করেননি চিকিৎসকরা।

শিশুর বাবা বলেন, আমরা ওকে নিয়ে গেলাম। তিনি বসে বসে টাকা গুণছেন কিন্তু ওর টেস্ট করলেন না। খবর পেয়ে মিরপুরের এক বাসিন্দা টার্মিনালে পড়ে থাকা শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এসময় হাসপাতালে ভর্তি না করার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে উত্তেজিত হয়ে ওঠেন কর্তব্যরত কয়েকজন ইন্টার্ন চিকিৎসক।

একপর্যায়ে সময় সংবাদের সাংবাদিকের ওপরও চড়াও হন তারা। ডেঙ্গু আক্রান্ত পথ শিশুটিকে ভর্তি না করার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলে জানান হাসপাতালটির পরিচালক। তিনি বলেন, আমরা ডেঙ্গু রোগী ভর্তি নিচ্ছি না, এটা ঠিক না।

তবে সব ডেঙ্গু রোগীকেও আমাদের পক্ষে ভর্তি করা সম্ভব নয়। বিষয়টি নিয়ে আগামীকাল আমি ব্যবস্থা নিচ্ছি। বুধবার দিনভর এসব ঘটনার পর পথশিশুটির সুচিকিৎসার কথা বিবেচনা করে তাকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেছেন শাহীন নামে মিরপুরের এক বাসিন্দা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: