বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু  » «   আইডিয়া’র ২৫ বছর পূর্তি উৎসবে র‍্যালি, আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  » «   উন্নয়ন করতে গিয়ে জীবন ও জীবিকার যেন ক্ষতি না হয় : প্রধানমন্ত্রী  » «   আজ দিন রাত সমান, আকাশে থাকবে সুপারমুন  » «   সহকর্মীর হাতে খুন হলেন তিন ভারতীয় সেনা  » «   মসজিদে হামলাধারী ব্রেন্টন আইএস থেকে ভিন্ন কিছু নয়: এরদোগান  » «   সিলেটে মেশিনে আদায় হবে যানবাহনের মামলার জরিমানা  » «   গ্যাসের দাম ১৩২% বৃদ্ধির প্রস্তাব হাস্যকর  » «   মেয়রের আশ্বাসে ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত  » «   দরিদ্র বলে এদেশে কিছু থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী  » «   এক সপ্তাহের মধ্যে আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ  » «   গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশি ওমরের মুখে মসজিদে হামলার লোমহর্ষক বর্ননা…  » «   আজ প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী,আ. লীগের শ্রদ্ধা  » «   আল্লাহর কসম, ইসলাম গ্রহণ করে আমি সম্মানিত: মার্কিন সঙ্গীতশিল্পী  » «   তনু হত্যার ৩ বছর আজ: এখনও শনাক্ত হয়নি ঘাতক, হতাশ পরিবার  » «  

ডায়াবেটিস রোগীরা কেন টমেটো খাবেন?



লাইফ স্টাইল ডেস্ক:: সম্প্রতি সময়ে ডায়াবেটিস রোগটি কথা এখন অনেকের মুখে শোনা যায়।অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন,খাবার খাওয়া, ঘুমসহ বিভিন্ন অভ্যাস ডায়াবেটিস রোগের কারণ হতে পারে।তবে নিয়ন্ত্রিতও চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চললে ডায়াবেটিস নিয়েও সুস্থ মানুষের মতোই বাঁচা যায়।

নিয়ন্ত্রণ করা না হলে ডায়াবেটিসের রোগীরা বিভিন্ন জটিল স্বাস্থ্য সমস্যায় ভোগেন।সঠিক খাদ্যভ্যাস ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে অনেক বড় ভূমিকা রাখতে পারে।টমেটো আমাদের জন্য খুবই পরিচিত একটি খাবার।সালাদ,ডালে বা তরকারিতে অনেকেই তা পছন্দ করেন।এর পাশাপাশি তা ডায়াবেটিস রোগীর ব্লাড সুগার কমাতেও কাজ করে।

ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব ফুড সায়েন্স অ্যান্ড নিউট্রিশনে প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়।২০০ গ্রাম কাঁচা টমেটো প্রতিদিন খাওয়া হলে টাইপ ২ ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।টাইপ ২ ডায়াবেটিস রোগীদের হৃদরোগের যে ঝুঁকি থাকে তা কমাতেও টমেটো কাজে আসে।ডায়াবেটিস রোগীর উপকারে আসে হোল গ্রেইন,ডাল, ফল ও সবজি।ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য আদর্শ একটি সবজি হলো টমেটো।

টমেটোর পুষ্টিগুণ
টমেটোর পুষ্টিগুণ হিসেব করলে তা অনেক রোগের জন্যই উপকারি।এতে রয়েছে প্রচুর পটাসিয়াম, ভিটামিন সি ও লাইকোপিন।লাইকোপিন একটি রঞ্জক পদার্থ যার কারণে টমেটো লাল দেখায়।এই লাইকোপিন হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। তা চোখের স্বাস্থ্য ভালো রাখতেও কাজ করে।

কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা
টমেটো রয়েছে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা।ডায়াবেটিসের রোগীদের শর্করার বিষয়ে বেশি সতর্ক থাকতে হয়।শর্করা তাদের ব্লাড সুগার বাড়িয়ে দেয় দ্রুত।টমেটোতে শর্করা কম এবং এ কারণেই ডায়াবেটিস রোগীরা তা খেতে পারেন নির্দ্বিধায়।

ওজন কমাতে
শুধু কার্বোহাইড্রেট নয়,টমেটোতে ক্যালোরিও অনেক কম।ডায়াবেটিস রোগীদের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা খুবই জরুরী। আর তাই ওজন কম রাখতে টমেটো তাদের জন্য উপকারি একটি খাবার।ডায়াবেটিস রোগীরা যে কোনোভাবেই টমেটো খেতে পারেন। তা সালাদ হিসেবে কাঁচা খাওয়া যায়,আবার ডাল,তরকারি, স্যুপ বা স্যান্ডউইচে দিয়েও খেতে পারেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: