মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রাতে দেশ ছাড়ছেন মাহমুদউল্লাহ-মুস্তাফিজ  » «   পারিবারিক অশান্তির মূলে পরকীয়া  » «   ‘এই সুমি সেই সুমি’  » «   সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ প্রিয়া প্রকাশ  » «   খালেদার শহীদ মিনারে শ্রদ্ধার বিষয়ে যা বললেন আ’লীগ নেতারা  » «   পাবনায় সরকারি এডওয়ার্ড কলেজে বই পড়া ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত  » «   পাবনা জেলা বিড়ি শিল্প মালিক সমিতির কমিটি গঠন শাহাদত সভাপতি রাসেল সম্পাদক  » «   কানাডায় বাংলাদেশি তরুণীর কৃতিত্ব  » «   মাথা না ধুলে ফরজ গোসল হবে?  » «   হোটেলে রুম ফাঁকা নেই, ফিরিয়ে দেয়া হলো মোদিকে  » «   ‘বর্তমান অবস্থায় খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন না’  » «   হবিগঞ্জে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের গুলি,আহত ৩০  » «   পোশাক নিয়ে আলোচনায় সোহানা সাবা  » «   ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত শহীদ মিনার  » «   চুনারুঘাটে অগ্নিকান্ডে ২টি দোকান পুড়ে ছাই  » «  

ট্রাম্প-মোদির ফোনালাপ



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মালদ্বীপের চলমান রাজনৈতিক সঙ্কট নিয়ে কথা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মালদ্বীপের রাজনৈতিক সঙ্কট এবং অন্যান্য ইস্যু নিয়ে ফোনে আলাপ করেছেন এই দুই নেতা। তারা ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নিরাপত্তা এবং সমৃদ্ধি বৃদ্ধি করতে একত্রে কাজ করার অঙ্গীকারও ব্যক্ত করেছেন। খবর এনডিটিভি।

সম্প্রতি মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদসহ নয় রাজবন্দীর মুক্তির নির্দেশ দেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু ওই রাজবন্দীদের মুক্তির আদেশ প্রত্যাখ্যান করেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন। তিনি দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেন। ফলে দেশে নতুন করে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা শুরু হয়।

জরুরি অবস্থা জারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই প্রধান বিচারপতিসহ দুই জ্যেষ্ঠ বিচারক এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট মামুন আব্দুল গাইয়ুমকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের গ্রেফতারের ঘটনার পর বিরোধী দলীয় ৯ রাজবন্দীর মুক্তির আদেশ এবং বরখাস্ত হওয়া বিরোধীদলের ১২ সংসদ সদস্যকেও পুনর্বহালের আদেশ দিয়ে জারি করা রুলটি মঙ্গলবার প্রত্যাহার করে নিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের ৫ বিচারপতির বেঞ্চের বাকি ৩ বিচারপতি।

ফোনালাপে মালদ্বীপের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মোদি এবং ট্রাম্প। এমন পরিস্থিতিতে সেখানে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার প্রতি জোর দিয়েছেন তারা।

রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়েও কথা বলেছেন এই দুই নেতা। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনীর অভিযানে সেখান থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে ৬ লাখ ৮০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম। ফলে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে তা নজিরবিহীন চাপ তৈরি করেছে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ এবং মিয়ানমার সরকারের মধ্যে একটি চুক্তি হয়েছে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র মনে করে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দেয়ার এটা সঠিক সময় নয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: