বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শুক্রবার শ্রীলঙ্কার মসজিদে হামলার হুমকি, নিরাপত্তা জোরদার  » «   মোটরসাইকেলে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মৃত্যু  » «   প্রেসক্রিপশন ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রিতে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা  » «   নুসরাত হত্যা: তদন্তে বেরিয়ে আসছে পুলিশ কর্মকর্তাদের গাফিলতি  » «   সিলেটের সীমান্ত দিয়ে ঢুকছে রোগাক্রান্ত ভারতীয় গরু  » «   খালেদা জিয়া সরকারের আইনগত সহায়তা পাওয়ার যোগ্য নন: আইনমন্ত্রী  » «   পরীক্ষাকেন্দ্রে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, ইনস্ট্রাক্টর কারাগারে  » «   নিউজিল্যান্ডের পার্মানেন্ট ভিসা পাচ্ছেন মুসলিমরা!  » «   জাফর ইকবাল হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন মহানগর হাকিম হরিদাস কুমার  » «   কান্নাজড়িত কণ্ঠে স্ত্রী-সন্তান হারানোর বর্ণনা দিলেন সুদেশ  » «   বহুদিন গোসল না করে অফিস করেছি: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী  » «   দল বহিষ্কার করতে পারে জেনেই শপথ নিয়েছি: জাহিদুর রহমান  » «   এবার শ্রীলঙ্কায় আদালতের পাশে বোমা বিস্ফোরণ  » «   কবরের জন্য জমি চাইলে বন্দেমাতরম বলতেই হবে: বিজেপি  » «   এবার শপথ নিচ্ছেন বিএনপির জাহিদুর  » «  

ট্রাম্পের আয়কর বিবরণী প্রকাশে আল্টিমেটাম দিল ডেমোক্রেটরা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আয়কর বিবরণী ২৩ এপ্রিলের মধ্যে প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্রেট সদস্যদের দিতে হবে বলে জানিয়েছে নিম্নকক্ষের কর ও বাজেট পর্যালোচনা এবং সুপারিশ সংক্রান্ত কমিটির চেয়ারম্যান রিচার্ড নিল। খবর বিবিসির।এর আগে ১০ এপ্রিলের মধ্যে আয়কর বিবরণীর তথ্য দিতে বললেও তাতে কান দেয়নি ট্রাম্প প্রশাসন।

যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ রাজস্ব বিভাগকে (আইআরএস) লেখা এক চিঠিতে রিচার্ড নিল জানিয়েছেন, এ দফায় আয়কর বিবরণী না দিলে ঘটনাটিকে ‘অনুরোধ অবজ্ঞা’ হিসেবে বিবেচনা করা হবে।প্রতিনিধি পরিষদের একমাত্র ব্যক্তি হিসেবে যে কারও আয়কর বিবরণী চাওয়ার সুযোগ আছে ওয়েস অ্যান্ড মিনস কমিটির চেয়ারম্যান রিচার্ডের। আর এ সংক্রান্ত একটি আইনও আছে।এদিকে এ ধরনের অনুরোধ করদাতার গোপনীয়তা লংঘনের শামিল বলে জানিয়েছেন রিপাবলিকানরা।

চিঠিতে আইআরএসের কমিশনার চার্লস রেটিগকে রিচার্ড বলেছেন, কমিটির আবেদন প্রত্যাখ্যানে কোনো উদ্বেগকেই আইনিভাবে ব্যবহার করা যাবে না। আপনারা যদি এ অনুরোধ রাখতে না পারেন সেটি আমার অনুরোধকে অবজ্ঞা করা হয়েছে বলে বিবেচিত হবে।

১৯৭৬ সালের পর থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নেওয়া সব প্রার্থীই তাদের আয়কর বিবরণী প্রকাশ করে আসছে। তবে এর জন্য নির্দিষ্ট কোনো বিধিবিধান নেই।ডেমোক্রেটরা এ আবেদনকে ‘বৈধ ও জরুরি’ বলে জানিয়েছেন। অন্যদিকে ট্রাম্পের এক আইনজীবী এ আবেদনকে ‘হয়রানি’ বলে অ্যাখ্যা দিয়েছেন।

গত বছরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে নিম্নকক্ষে রিপাবলিকানদের ভরাডুবি ট্রাম্পের ব্যক্তিগত ও ব্যবসায়িক লেনদেনের বিষয়ে তদন্তের দ্বার খুলে দেয়। ওই নির্বাচনে বেশি সংখ্যক আসনে জিতে ডেমোক্রেটরা প্রতিনিধি পরিষদ পুনরায় দখল করে নেয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: