বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «   ফের গ্রেপ্তার নাজিব রাজাক; দায়ের হবে ২১ মামলা  » «   প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ আবেদনেই প্রতিষ্ঠানের ৪০ কোটিরও বেশি আয় !  » «   ইউএনওদের জন্য উচ্চমূল্যে ১০০ জিপ গাড়ি, আপত্তি অর্থ মন্ত্রণালয়ের  » «   ডিজিটাল হলো জাতীয় পরিচয়পত্রের সেবা ব্যবস্থাপনা  » «   লন্ডনে মুসলিমদের ওপর গাড়ি হামলা, আহত ৩  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের ৫% সুদে গৃহঋণের আবেদন অক্টোবরে  » «   ভারতে তিন তালাককে শাস্তিযোগ্য অপরাধ ঘোষণা  » «   স্কুলছাত্রীকে পিটিয়ে অজ্ঞান করলেন শিক্ষক  » «   বোমা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, আর ইয়েমেনে সেই বোমা ফেলছে সৌদি  » «   রাখঢাক রাখছেন না পর্নো তারকা ডানিয়েল স্টর্মি  » «   কাবা শরীফের ভেতরে প্রবেশের সুযোগ পেলেন ইমরান  » «   মিয়ানমারে নিলামে উঠছে সুচির ভাস্কর্য  » «   এক দিনেই মিলবে পাসপোর্ট  » «   ওসমানী বিমানবন্দরে বিমানে তল্লাশি : ৪০টি স্বর্ণের বার উদ্ধার, চোরাচালানী আটক  » «  

ট্রাম্পের অভিযোগ : রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে জার্মানি!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক::প্রতিরক্ষা খাতে জার্মানির বরাদ্দ পর্যাপ্ত নয় বলে অভিযোগ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি মন্তব্য করেন, জার্মানি পুরোপুরি রাশিয়া দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। এটা ন্যাটোর জন্য খুবই খারাপ বিষয়।

বুধবার (১১ জুলাই) ব্রাসেলসে বৈঠকে বসতে যাচ্ছে ন্যাটো জোটের সদস্য দেশগুলো। বৈঠকে আগ দিয়ে ন্যাটোর মহাসচিবের সঙ্গে তীব্র বাকবিতণ্ডায় জড়িয়েছেন ট্রাম্প। ট্রাম্প ন্যাটো মহাসচিবকে বলেছেন, রাশিয়ার কাছ থেকে জ্বালানী ও গ্যাস আমদানি করার কারণে জার্মানি তাদের কাছে বন্দী।

ট্রাম্প বলেন, ‘ এটা একেবারে অপ্রত্যাশিত। জার্মানি রাশিয়া দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। গ্যাস কেনা বাবদ জার্মানি প্রতিবছর হাজার হাজার কোটি ডলার রাশিয়ার হাতে তুলে দিচ্ছে। আমার কাছে মনে হয়, এ বিষয়ে ন্যাটোর মনোযোগ দেওয়া উচিত।’

ট্রাম্পের এ কথার বিরোধিতা করে স্টোলটেনবার্গ বলেন, ‘জোটের সদস্যদের মধ্যে মতপার্থক্য আছে। তবে আলাদা আলাদ থাকার চেয়ে একসঙ্গে থাকলেই আমাদের শক্তি বাড়বে।’

স্টোলটেনবার্গের এ মন্তব্যের পরিপেক্ষিতে ট্রাম্প পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘জার্মানি যেখানে রাশিয়াকে ধনী বানাচ্ছে, সেখানে ন্যাটো শক্তিশালী হবে কিভাবে!’

বর্তমানে বাণিজ্য নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। এ অবস্থায় এবারের ন্যাটো সম্মেলনে ট্রাম্প তোপের মুখে পড়তে পারেন বলে ধারণা করছেন অনেকেই।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: