শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «   গজারী বনে যুবতীর অর্ধগলিত লাশ  » «   ‘খালেদা চেয়েছিলেন আমি কারাগারেই মরি’: এরশাদ  » «   রাজনীতিতে ভালবাসার কোনো স্থান নেই : কাদের  » «   ফতুল্লার ব্রাজিল বাড়িতে নিজ দেশের খেলা দেখবেন রাষ্ট্রদূত  » «   সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ দিতে উদ্যোগ নিচ্ছে গুগল  » «   জামিনের ৭ দিন পরে ফের ইয়াবাসহ আটক  » «   প্রিয়জনের রাগ ভাঙাবেন যেভাবে!  » «   নদী ভাঙনে বড়লেখার ৫ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ চরমে  » «   আইসিআরসি প্রেসিডেন্ট আসছেন ৩০ জুন  » «   মা হলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী!  » «   যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ২  » «  

টাঙ্গাইলের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি বিএনপির



ripon_sm_191186920নিউজ ডেস্ক: টাঙ্গাইলে পুলিশের গুলিবর্ষণে চার জন নিহত হওয়ার ঘটনায় স্বাধীন বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান বিএনপির মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন।

টাঙ্গাইলে পুলিশের গুলিতে চারজনের প্রাণহানির নিন্দা জানিয়ে রিপন বলেন, টাঙ্গাইলের ঘটনায় স্বাধীন বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠন করতে হবে। নিহতদের পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। ‍টাঙ্গাইলে পুলিশ প্রবিধান মেনে গুলি বর্ষণ করেনি বলেও অভিযোগ করেন রিপন।

এছাড়া গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধের চেষ্টার জন্য তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সমালোচনা করেন আসাদুজ্জামান রিপন।

তিনি বলেন, হাসানুল হক ইনু তথ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই গণমাধ্যমের কণ্ঠ আরও বেশি করে রোধ করা হচ্ছে।

এছাড়া অাইসিটি অ্যাক্টকে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা বিরোধী উল্লেখ করে এর বিতর্কিত ধারা বাতিলের দাবি জানান তিনি।

রিপন বলেন, সোস্যাল মিডিয়াকে নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি আইসিটি আইনের মাধ্যমে গণমাধ্যমের প্রতি অপ্রকাশ্য বৈরী নীতি চালিয়ে যাচ্ছে সরকার। এই সরকার গণতান্ত্রিকও নয় সামরিকও নয়। গণমাধ্যমের ওপর তাদের বৈরী নীতি ক্রমেই দৃশ্যমান হয়ে উঠেছে।

সাংবাদিক নঈম নিজামের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রসঙ্গটি উল্লেখ করে রিপন বলেন, বিভিন্ন উপলক্ষ সামনে রেখে সাংবাদিক, সম্পাদকদের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, প্রথম আলো ডেইলি স্টার যদিও কোনো অভিযোগ করেনি তবে একজন পাঠক হিসেবে আমরা দেখি গুরুত্বপূর্ণ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন আর ওই দুই পত্রিকায় প্রকাশ হচ্ছে না। বিজ্ঞাপন বন্ধের মাধ্যমে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধের চেষ্টা করছে।

সোমবার দুপুর সাড়ে বারোটায় শুরু হওয়া প্রেস ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন যুবদলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মহিলা দলের সভাপতি নূরে আরা সাফা, বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, জাসাসের সভাপতি এম এ মালেক, সাধারণ সম্পাদক মনির খান প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: