বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বরখাস্তকৃত ন্যানগ্যাগওয়াই হচ্ছেন জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট  » «   খালেদার গাড়িবহরে হামলা সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের পরিকল্পনার অংশ  » «   এক মোটরসাইকেলেই বিশ্ব রেকর্ড  » «   কাঁদলেন ঐশ্বরিয়া, ১শ শিশুর ঠোঁটের অস্ত্রোপচারে খরচ দিবেন  » «   কাল থেকে পুনরায় চালু হচ্ছে চুয়েট বাস  » «   বলি একটা লেখেন আরেকটা: সাংবাদিকদের রোনালদো  » «   এসএসসি পরীক্ষা শুরু ১ ফেব্রুয়ারি  » «   মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হবে ছাত্রলীগের স্কুল কমিটি  » «   এগিয়ে থাকুন সৃজনশীলতায়  » «   সংসদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ১ বছরে সাড়ে ৩ কোটি ইয়াবা জব্দ  » «   শ্রীমঙ্গলে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন  » «   দখলমুক্ত হচ্ছে খাল ও নদী  » «   কুমিল্লায় হানিফ‘আ’লীগকে হুংকার দিয়ে লাভ নেই’  » «   কমলগঞ্জে প্রতিহিংসায় বিনষ্ট কৃষকের শিম বাগান  » «   অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ সহ নানা অভিযোগ  » «  

টাকা না দেয়ায় শাশুড়ি ও শ্যালিকাকে কুপিয়ে জখম



নিউজ ডেস্ক::গাজীপুরের শ্রীপুরের নগর হাওলা গ্রামে শাশুড়ি ও শ্যালিকাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় জামাতা রিয়াজউদ্দিনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

অভিযুক্ত রিয়াজ উদ্দিন (২৫) কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার আপোয়ারকাতা গ্রামের মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে। সে স্ত্রী বকুলী আক্তার ও ৮ বছরের এক সন্তানসহ নগরহাওলা গ্রামের মুজিবর মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি কারখানায় চাকরি করতেন। সোমবার (১৩ নভেম্বর) সকাল নয়টার দিকে মুজিবর মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন নেত্রকোনা জেলার দূর্গাপুর উপজেলার ঝানজাইড় গ্রামের বকুল মিয়ার স্ত্রী খোরশেদা (৬৫) ও একই এলাকার মনজুর মিয়ার মেয়ে মর্জিনা আক্তার (৩৫)। খোরশেদা রিয়াজউদ্দিনের শাশুড়ি ও মর্জিনা সম্পর্কে শ্যালিকা। তাঁরা উভয়েই গত শুক্রবার (১০ নভেম্বর) মেয়ে বকুলির বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন।

বকুলি আক্তার এ ঘটনার বিষয়ে বিডি২৪লাইভকে বলেন, সে গত চার বৎসর যাবৎ স্বামী রিয়াজউদ্দিন ও এক ছেলেকে নিয়ে তারা নগরহাওলা গ্রামের মুজিবর মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন। এবং স্বামী-স্ত্রী উভয়েই একটি কারখানায় চাকুরী করেন। বিভিন্ন সময় রিয়াজউদ্দিন ব্যবসা করার উদ্দেশ্যে শাশুড়ির কাছে ২০ হাজার টাকা ধার হিসেবে দাবি করে আসছিল।

কিন্তু শ্বশুর বাড়ির লোকজন টাকা দিতে না পারায় গত ছয় মাস যাবৎ শ্বশুর বাড়ির সাথে সম্পর্কের অবনতি হয় রিয়াজউদ্দিনের। এ দিকে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বকুলির মা খোরশেদা ও মামাতো বোন মর্জিনা বেড়াতে আসলে রিয়াজউদ্দিন মনোক্ষুন্ন হয়। এর জের ধরে সোমবার সকালে রিয়াজউদ্দিন তাঁর ছেলেকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হওয়ার প্রস্তুতি নিলে শাশুড়ি খোরশেদার সাথে কথাকাটাকাটি হয়।

এর এক পর্যায়ে সে ঘর থেকে দাঁ নিয়ে শাশুড়ি ও শ্যালিকাকে কুঁপিয়ে আহত করে। পরে স্থানীয়রা মুমূর্ষু অবস্থায় তাঁদের উদ্ধার করে প্রথমে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে সেখান থেকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে।

শ্রীপুর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মোহসিন মিয়া বলেন, এ ঘটনায় স্থানীয়রা অভিযুক্ত রিয়াজউদ্দিনকে আটক করে শ্রীপুর থানায় খবর দিলে পুলিশ দুপুর ১২ টার দিকে অভিযুক্তকে হেফাজতে নেয়। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: