মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Sex Cams
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

টাকার উপর ঘুমিয়ে পড়া ছবির ব্যাখ্যা দিলেন সেই এসআই



নিউজ ডেস্ক:: নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের এসআই আরিফুর রহমান গাড়ির ভেতরে টাকার বান্ডিল নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েছেন। এমন একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে ভাইরাল হওয়া ওই ছবিটিতে দেখা যায়, ডিবির এসআই মো. আরিফুর রহমান টাকার উপর ঘুমিয়ে আছেন। এ নিয়ে পুলিশ প্রশাসনের মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ ও এর আশপাশ এলাকায় ডিউটি করেন এসআই আরিফুর রহমানসহ এক দল পুলিশ। বুধবার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জে ডিবির ব্যবহৃত একটি গাড়ি রাস্তার পাশে পার্কিং করা ছিল। ওই সময় একাধিক ব্যক্তি গাড়ির ভেতরের কয়েকটি ছবি তোলেন।

এতে দেখা যায়, ডিবির এসআই আরিফুর রহমান টাকার উপর ঘুমিয়ে আছেন। টাকাগুলোর প্রতিটি বান্ডিল আকারে বড় দেখা যায়। ১০০, ৫০০ ও এক হাজার টাকার নোটের বেশ কয়েকটি বান্ডিল ছিল সেখানে। তবে টাকার মোট অংক জানা যায়নি। পাশে ছিল তার ব্যবহৃত ওয়্যারলেস। টাকার উপর ঘুমানোর ছবিগুলো ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ভাইরাল হয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আরিফুর রহমান বলেন, গাড়িতে ঘুমিয়ে থাকা ছবিটি আমাদের সঙ্গে থাকা কেউ তুলেছেন। শরীর অনেক ক্লান্ত থাকায় গাড়িতে ঘুমিয়ে পড়েছিলাম আমি। আমার পাশে যে টাকাগুলো ছবিতে দেখা গেছে সেগুলো মায়ের চিকিৎসার জন্য এক বন্ধুর কাছ থেকে নিয়েছিলাম। সেখানে এক লাখ ২০ হাজার টাকা ছিল। ঘটনাটি চার-পাঁচ মাস আগের ঘটনা। আগের তোলা ছবিটি এখন ভাইরাল হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: