বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দিল্লির বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সংঘর্ষে চার জন নিহত ও ৫০ জন আহত  » «   পুলিশের কব্জায় অটোরিকশা, মায়ের ক্যান্সার চিকিৎসায় শেষ সম্বলও বিক্রি  » «   ১০ লাখ শিক্ষার্থী পাবে ২৯২ কোটি টাকা  » «   ৩৪০০ টাকার পাসপোর্ট ফি ৫২০০ টাকা চেয়ে দুদকের হাতে ধরা  » «   কিশোরগঞ্জে ভাবিকে হত্যার দায়ে দেবরের মৃত্যুদণ্ড  » «   ক্ষমতাসীনরা দেশকে অন্ধকারের দিকে নিয়ে যাচ্ছে  » «   চট্টগ্রামে শিশু গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু  » «   মামলা তুলে না নেয়ায় স্ত্রীকে মেরেই ফেললেন স্বামী  » «   ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে চাকরি, চার পুলিশ সদস্য কারাগারে  » «   করোনাভাইরাস : জাপানি প্রমোদতরীর আরও এক যাত্রীর মৃত্যু  » «   বঙ্গবন্ধু উপাধির ৫১ বছর  » «   ঢাকা-সিলেট ৬ লেনে এডিবির অর্থ ফেরত যাওয়ার শঙ্কা  » «   বাঈজী সরদারনি যুব মহিলালীগ নেত্রী পাপিয়ার উত্থান যেভাবে  » «   কী আছে পাপিয়ার ভিডিও ক্লিপে?  » «   ইতালিতে করোনায় আক্রান্ত ৭৯  » «  

জয়ের জন্য ৩৯৮ রানের অসম্ভব লক্ষ্য পেলো বাংলাদেশ



স্পোর্টস ডেস্ক:: চট্টগ্রামে বাংলাদেশ এবং আফগানিস্তানের মধ্যকার একমাত্র টেস্টে স্বাগতিকদের ৩৯৮ রানের জয়ের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে আফগানরা। বৃষ্টি বিঘ্নিত চতুর্থ দিনের খেলা শুরু হয় নির্ধারিত সময়ের ২ ঘন্টা ১০ মিনিট পর। চতুর্থ দিনে ২৩৭ রান নিয়ে খেলতে নেমে মাত্র ২৩ রান যোগ করে অল আউট হয় আফগানরা।

বৃষ্টি শেষে সকাল সকাল ১১টা ৫০ মিনিটে শুরু হয়েছে চতুর্থ দিনের খেলা। খেলা শুরুর সময়ের সঙ্গে সমন্বয় করা হয়েছে সেশনগুলোর সময়ও। লাঞ্চ বিরতি হবে দুপুর একটায়। আলো থাকলে চেষ্টা করা হবে দিনে অন্তত ৭৩ ওভার খেলা চালানোর।

এর আগে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকায় আলোক স্বল্পতার কারনে ৪৫ মিনিট আগেই শেষ হওয়ায় চট্রগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিন। দিনশেষে আফগানদের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ২৩৭ রান। লিড ৩৭৪ রানের। তৃতীয় দিনের শুরুতে টাইগারদের ২০৫ রানে অলআউট করে আফগানরা। মোসাদ্দেক হোসেন ৪৮ রানে অপরাজিত ছিলেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে ১৩৭ রানের লিড নিয়ে ব্যাট করতে নামে আফগানার। কিন্তু শুরুটা ভালো করতে দেননি সাকিব। একওভারে তুলে নিলেন তাদের দুই ব্যাটসম্যান। সেই চাপ সামলে নেন আসগান আফগান ও ইব্রাহিম জাদরান। দু’জনে ১০৮ রানে পার্টনারশিপ গড়ে তুলেন।

তবে, ফিফটি করে আফগান ফিরলেও ক্রিজে অবিচল ছিলেন ওপেনার ইব্রাহিম জাদরান। তরুণ অফ স্পিনার নাইম হাসানের বলে মুমিনুল হকের তালুবন্দি হয়ে শেষ হয় ইব্রাহিম জারদানের ২০৮ বলে ৮৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস।

দলীয় ২৮ রানে হাশমতউল্লাহকে বিদায় করেন নাঈম হাসান। এরপরেও দমে যাননি আফগানরা। এরপর আসগর আফগানকে নিয়ে দ্বিতীয় দফায় প্রতিরোধ গড়েন ইব্রাহিম। ১০৮ রানের জুটি গড়েন তারা। এমনসময় দলীয় ১৩৬ রানে অর্ধশতক করা আসগর আফগানকে ফিরিয়ে দেন তাইজুল। তার ঘূর্ণি বলে ক্যাচ লুফে নেন সাকিব। আফগান ফিরে গেলে ইব্রাহিমও (৮৭) তার দেখানো পথেই হাটেন নাঈমের শিকার হয়ে।

দলীয় ১৭১ রানে ইব্রাহিম আউট হলে উইকেটে আসেন মোহাম্মদ নবী। এরপর আফসারের সাথে জুটি গড়ার চেষ্টা করলে তাকে ফিরিয়ে দেন মিরাজ। এরপর অধিনায়ক রশিদ খান ছয়টি বাউন্ডারিতে ২৪ রান করেন আর তাইজুলের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান। এরপর সাকিব ফিরিয়ে দেন ১৪ রান করা কায়েস আহমেদকে।

দ্বিতীয় ইনিংসে আফগানিস্তান অলআউট হলো ২৬০ রানে। শেষ দুটি উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং মেহেদী হাসান মিরাজ। তার আগে গতকালের সঙ্গে আরও ২৩ রান যোগ করেছে আফগান ব্যাটসম্যানরা। সব মিলিয়ে আফগানদের লিড দাঁড়িয়েছে ৩৯৭ রান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: