বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে নির্মাণ হতে যাচ্ছে স্মৃতিসৌধ,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডিও লেটার  » «   সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশের ১০ ধাপ অবনতি  » «   জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু  » «   আইডিয়া’র ২৫ বছর পূর্তি উৎসবে র‍্যালি, আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  » «   উন্নয়ন করতে গিয়ে জীবন ও জীবিকার যেন ক্ষতি না হয় : প্রধানমন্ত্রী  » «   আজ দিন রাত সমান, আকাশে থাকবে সুপারমুন  » «   সহকর্মীর হাতে খুন হলেন তিন ভারতীয় সেনা  » «   মসজিদে হামলাধারী ব্রেন্টন আইএস থেকে ভিন্ন কিছু নয়: এরদোগান  » «   সিলেটে মেশিনে আদায় হবে যানবাহনের মামলার জরিমানা  » «   গ্যাসের দাম ১৩২% বৃদ্ধির প্রস্তাব হাস্যকর  » «   মেয়রের আশ্বাসে ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত  » «   দরিদ্র বলে এদেশে কিছু থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী  » «   এক সপ্তাহের মধ্যে আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ  » «   গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশি ওমরের মুখে মসজিদে হামলার লোমহর্ষক বর্ননা…  » «   আজ প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী,আ. লীগের শ্রদ্ধা  » «  

জ্যাককে কেন বাঁচানো হয়নি তার কারণ বললেন নির্মাতা!



বিনোদন ডেস্ক::‘টাইটানিক’-এর শেষের দিকের সেই দৃশ্যটা পছন্দ হয়নি দর্শকদের। দৃশ্যটি ছিল—সেখানে রোজকে একটা ভাসমান দরজার ওপর উঠিয়ে দিয়ে ধীরে ধীরে ঠাণ্ডায় জমে মারা যায় জ্যাক।

২০ বছর ধরে নানা যুক্তি দিয়ে এই দৃশ্যের বিরুদ্ধে নিজেদের মত প্রকাশ করছেন জ্যাক-রোজ ভক্তরা। তবে ছবির পরিচালক জেমস ক্যামরনের মত কিন্তু ভিন্ন। অনেক দিন ধরেই তিনি যুক্তি দিয়ে বলে আসছেন, যুক্তিযুক্ত কারণেই জ্যাক মারা গিয়েছিল।

২০১২ সালে এক সাক্ষাৎকারে তিনি যুক্তি দিয়ে বলেছিলেন, ‘দরজার সেই ভেলায় রোজকে উঠিয়ে দিয়ে জ্যাক কিন্তু চেষ্টা করেছিল ওটায় উঠতে। কিন্তু সেটা উল্টে যেতে পারত। এখানে ভেলার স্থানসংকুলানের কথা আসছে না। দরজাটি যেকোনো একজনকে নিয়েই ভেসে থাকতে পারত। ফলে জ্যাক সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, সেই একজনটা হবে রোজ। বিষয়টি বাস্তবসম্মত করার জন্য একটা কাঠের টুকরার ওপর মানুষজন রেখে প্রায় দুই দিন ধরে পরীক্ষাও করেছিলাম। পরীক্ষার পর আমরা একমত হয়েছিলাম, সাহায্য করতে আসা জাহাজটি পৌঁছার আগ পর্যন্ত সেই কাঠের টুকরায় একজন মানুষই ভেসে থাকতে পারত।’

‘টাইটানিক’-এর মুক্তির ২০ বছর পূর্তিতে আবারও সেই তর্ক উঠে এসেছে। এবার ভ্যানিটি ফেয়ার ম্যাগাজিন প্রশ্নটি রেখেছিল জেমস ক্যামরনের কাছে। পরিচালক এই তর্ক-বিতর্কে রীতিমতো ত্যক্ত-বিরক্ত।

তাই এই বিতর্ক শেষ করার জন্য এবার পরিষ্কার করেই উত্তর দিলেন, “এর উত্তরটা আসলে খুবই সহজ। কেননা ‘টাইটানিক’-এর চিত্রনাট্যের ১৪৭ পৃষ্ঠায় সাফ সাফ লেখা আছে, জ্যাক মারা যাবে। এর থেকে বোকামির আর কী হতে পারে যে দুই দশক পরও এ বিষয়টি এখনো আমরা আলোচনা করে যাচ্ছি। দর্শকরা যেন জ্যাকের মৃত্যুতে দুঃখ পায়, সে জন্যই আসলে দৃশ্যটা রচনা করা হয়েছিল। জ্যাক যদি বেঁচে যেত তাহলে ছবির সমাপ্তিটা কোনো প্রভাব ফেলত না দর্শকদের মনে। ছবিটির বিষয়বস্তু হচ্ছে মৃত্যু আর বিচ্ছেদের। ফলে জ্যাককে মরতেই হতো। এখানে পদার্থবিজ্ঞানের যতই যুক্তি দেখান না কেন, শৈল্পিকতার কারণে জ্যাককে মরতেই হতো। ”

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: