রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল, সম্পাদক বাবু  » «   চার দিনের সফরে আজ আমিরাত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   শ্রীলঙ্কায় মুসলিম ভোটারদের বহনকারী বাসে বন্দুকধারীদের হামলা  » «   আজ পহেলা অগ্রহায়ণ: নানা আয়োজনে চলছে ‘নবান্ন উৎসব’  » «   মোরালেস সমর্থকদের ওপর পুলিশের এলোপাতাড়ি গুলি, নিহত ৫  » «   স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   যাত্রীর ফেলে যাওয়া ২০ লাখ টাকা ফেরত দিলেন রিকশাচালক  » «   দেশে ফিরে নির্যাতনের আরও ভয়াবহ তথ্য দিলেন সুমি  » «   বাবরি মসজিদের রায় নিয়ে এবার ক্ষেপেছে শিখরা  » «   নিখোঁজ মেডিকেল শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   এসএসসি ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি, নির্বিকার প্রশাসন  » «   স্টেশন মাস্টারের ভুলে ৮ বগি লাইনচ্যুত, উত্তরবঙ্গে রেল-সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন  » «   বিন লাদেনকে পাকিস্তানের হিরো বললেন পারভেজ মোশাররফ  » «   রোববার প্রাথমিক-ইবতেদায়ী সমাপনী শুরু, পরীক্ষার্থী কমেছে  » «   ধড়পাকড়ে স্বপ্ন এখন দুঃস্বপ্ন, ফিরলেন আরও ২১৫ কর্মী  » «  

জেল থেকে বাসায় ফিরলেন নওয়াজ-মরিয়ম



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: লন্ডন ফ্ল্যাট দুর্নীতি মামলায় ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ পাওয়া পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন। মুক্তির পর বাসায় ফিরেছেন পাকিস্তান মুসলিম লিগের (নওয়াজ) প্রধান নেতা।

বুধবার ইসলামাবাদের এক আদালত তার সাজা বাতিল করে মুক্তির নির্দেশ দেওয়ার পর তা আজ কার্যকর হল। ফলে দুই মাস জেল খাটার পর মুক্ত হয়ে নিজের বাসায় ফিরলেন নওয়াজ।

৬৮ বছর বয়সী এই নেতার পাশাপাশি তার মেয়ে মরিয়ম ও মেয়ের স্বামী সফদার আওয়ানের রায়ও স্থগিত করা হয়েছে। গেলো জুলাই মাসে তাদের জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। ঠিক পাকিস্তানের নির্বাচনের কয়েকদিন আগেই। সেসময় সফদারের এক বছরের ও মরিয়মের সাত বছরের জেল হয়।

এর আগে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে তাদের ফাঁসানো হয়েছে বলে নওয়াজ অভিযোগ করেন ও আদালতে মুক্তি পেতে আবেদন করেন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতেই বুধবার ইসলামাবাদের হাইকোর্ট এই রায় দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই লন্ডনে নওয়াজ শরিফের স্ত্রী কুলসুম নওয়াজ ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান হন। তারপরই এক সপ্তাহের মধ্যে এই রায় সামনে এলো।

পানামা পেপার্স কেলেঙ্কারি সামনে আসার পরে দুর্নীতি মামলায় নওয়াজের জেল হয়। পাকিস্তানি সেনাবাহিনী রাজনৈতিক ফায়দা লুটার জন্যই ভোটের কয়েকদিন আগে নওয়াজকে জেলে পাঠানো হয়েছিল, এমটাই দাবি করে আসছিল নওয়াজ নেতৃত্বাধীন দলটি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: