শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

জিহাদের মৃত্যু : ৬ জনের বিরুদ্ধে বিচার শুরু



jihad1475566494রাজধানীর শাহজাহানপুরে পরিত্যক্ত পাইপে পড়ে শিশু জিহাদের নিহতের মামলায় ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান আসামিদের অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন। একই সঙ্গে বিচারক আগামী ১৮ অক্টোবর সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেন। অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে অভিযুক্ত আসামিদের বিচার শুরু হলো।

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে তারা হলেন, মেসার্স এসআর হাউজের প্রোপ্রাইটর মো. শফিকুল ইসলাম ওরফে আব্দুস সালাম, বাংলাদেশ রেলওয়ের সিনিয়র সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (নলকূপ পরিদর্শন) মো. জাহাঙ্গীর আলম, কমলাপুর রেলওয়ের সহকারী প্রকৌশলী মো. নাসির উদ্দিন, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার জাফর আহমেদ শাকি, সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) দীপক কুমার ভৌমিক ও সহকারী প্রকৌশলী-২ মো. সাইফুল ইসলাম।

২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর বিকেল ৩টার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরের রেলওয়ে মাঠসংলগ্ন ঢাকা ওয়াসার পানির পাম্পের পাইপে শিশু জিহাদ পড়ে যায়। পরের দিন দুপুরে স্থানীয় তিন যুবক নিজেদের তৈরি একটি ক্যাচারের মাধ্যমে জিহাদের মরদেহ উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় জিহাদের বাবা নাসির উদ্দিন ফকির ২৭ ডিসেম্বর একটি মামলা দায়ের করেন। গত বছর ৭ এপ্রিল জাহাঙ্গীর আলম ও শফিকুল ইসলামকে অভিযুক্ত করে দণ্ডবিধির ৩০৪ ধারায় (অবহেলাজনিত মৃত্যু) আদালতে এই অভিযোগপত্র দাখিল করেন শাহজাহানপুর থানার এসআই আবু জাফর।

কিন্তু ওই অভিযোগপত্রে নারাজী দাখিল করা হয়। পরে অধিকতর তদন্ত করে ৬ জনকে অভিযুক্ত করে ডিবি পুলিশের এসআই মিজানুর রহমান গত ৩১ মার্চ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: