শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কাল পবিত্র আশুরা, তাজিয়া মিছিলে ছুরি-তলোয়ার নিষিদ্ধ  » «   জেল থেকে বাসায় ফিরলেন নওয়াজ-মরিয়ম  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৫ কোটি ডলার সহায়তা  » «   রান্নাঘরের গ্রিল কেটে শাবির ছাত্রী হলে চুরি,নিরাপত্তাহীনতায় ছাত্রীরা  » «   এখনও জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ : যুক্তরাষ্ট্র  » «   মোদিকে ইমরানের চিঠি: পুনরায় শান্তি আলোচনা শুরুর তাগিদ  » «   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতেই বিচার চলবে: আদালত  » «   ফুটপাতের খাবার বিক্রেতা থেকে সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি!  » «   বিএনপি নেতাদের ওপর ক্ষুব্ধ তারেক রহমান!  » «   পায়রা বন্দরের নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষ আয়োজন  » «   সরকারের চাপের মুখে দেশত্যাগ করতে হয়েছে: এসকে সিনহা  » «   পুতিন আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে : রাশিয়ান মডেল  » «   বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «  

জাতীয় প্রেসক্লাবে নৌমন্ত্রী‘স্বাধীনতার বিপক্ষের মেধাকে চাকরি দেওয়া যাবে না’



নিউজ ডেস্ক::স্বাধীনতার বিপক্ষের মেধাকে চাকরি দেওয়া যাবে না এমন দাবি করে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে নৌমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, ‘আমরা কোটার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করি নাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাকে বলছি, আপনি কোটা বাতিল করেছেন মেনে নিয়েছি। কিন্তু আমাদের দাবি আপনাকে মানতেই হবে।’

রবিবার (১৫ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক গণজমায়েতে তিনি এসব কথা বলেন। শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ এবং মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদ যৌথ ভাবে এ সমাবেশের আয়োজন করে।

‘কোটা বিরোধী আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের অপমান করা হয়েছে’ মন্তব্য করে নৌমন্ত্রী বলেন, ‘কোটা সংস্কার আন্দোলন ছাত্ররা করতেই পারে। তাদের দাবি তারা সরকারের সামনে তুলে ধরতে পারে। কিন্তু এই আন্দোলনে এমন কিছু শ্লোগান উত্থাপিত হয়েছে, যা মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানে আঘাত করেছে।’

কোটা সংস্কারে আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যেও শাজাহান খান বলেন, ‘তোমরা মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান নাই করতে পার, কিন্তু অপমান করতে পার না। কোটা নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হচ্ছে। এখন প্রশ্ন হলো, আমরা কাদের মেধাবী বলব? আদর্শহীন কাউকে আমরা মেধাবী বলতে পারি না।’

‘আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ আমরা যারা রাষ্ট্র পরিচালনায় নিয়োজিত আছি, তারা কেউই ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট হই নাই। কিন্তু আমরা রাষ্ট্র পরিচালনায় দক্ষ।’

সভাপতির বক্তব্যে শাজাহান খান বলেন, ‘আমরা বিস্মিত হয়েছি, যখন দেখেছি এই আন্দোলনের মধ্যে এমন কিছু লোক, ভিসির বাড়িতে রাতে মুখোশ পরে আক্রমণ করেছে এবং সেখানে ভাঙচুর ও অগ্নিসংগযোগ করেছে। এরা কারা? এদেরকে চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘অনেকেই এই আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে চেষ্টা করেছে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্য। তারেক রহমান এই আন্দোলনকে নস্যাৎ করার চেষ্টা করেছিল।’

এ সময় রাজাকার, জামায়াত, শিবিরের সন্তানদের সরকারি চাকরি না দেওয়া এবং যারা সরকারি চাকরিতে রয়েছে তাদের অপসারণ করার দাবিসহ মন্ত্রী ছয় দফা দাবি ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে দাবি আদায়ে কর্মসূচিও ঘোষণা করেন

নৌন্ত্রী শাজাহান খানের সভাপতিত্বে গণজমায়েত ও মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের আহবায়ক আশিবুর রহমান খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমত কাদির গামা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা ওসমান আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা এ বি এম সুলতান আহমেদ, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা এমপি, সাংবাদিক আবেদ খান, নাট্যব্যক্তিত্ব রোকেয়া প্রাচী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান এবং অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান দুর্জয় প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: