মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লিপস্টিক যখন মাজাদার খাবার!  » «   কিশোরী ধর্ষণের প্রমান মেলায় ২ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র  » «   শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমৃদ্ধ শিক্ষা দিতে হবে- রেজাউল রহিম লাল  » «   মাশরাফির রংপুরের কাছে নাসিরের সিলেটের পরাজয়!  » «   যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় নারীর মৃত্যু  » «   সালমানের স্ত্রী-সন্তান থাকে বিদেশে!  » «   পুলিশ পেটালো ছাত্রলীগ!  » «   চুয়াডাঙ্গায় সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু  » «   বিপিএল পয়েন্ট টেবিলে কে কোথায় দাঁড়িয়ে  » «   আম্পায়ারের সঙ্গে সাকিবের এ কেমন আচরণ!  » «   সংসদে বাদলকে তুলোধুনো করলেন নৌমন্ত্রী  » «   ৭ মার্চ কেন জাতীয় দিবস নয় : হাইকোর্ট  » «   আজ সুফিয়া কামালের জন্মদিন  » «   অভিবাসীবিরোধী নন ট্রাম্প  » «   আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন করবেন শাহরুখ  » «  

জন্মের প্রথম ১০ মাসেই শিশুর ওজন ২৮ কেজি!



বিচিত্র ডেস্ক::জন্মের প্রথম ১০ মাস বয়সেই ওজন হয়েছে ৬২ পাউন্ড বা ২৮ কেজি। অবিশ্বাস্য শোনালেও এটাই বাস্তব মেক্সিকোর লুইস ম্যানুয়েল গনজালেসের জীবনে।

লুইস ম্যানুয়েল গনজালেস নামের এই শিশুটির ওজন অবিশ্বাস্য হারে দ্রুততার সঙ্গে বেড়েই চলেছে। সঙ্গে বাড়ছে তার ক্ষুদা। একটা সাধারণ শিশুর চেয়ে প্রায় ৬ গুণ বেশি খাবার খায় সে।

জন্ম থেকেই বিরল প্র্যাডার উইলি সিনড্রোমে আক্রান্ত লুইস ম্যানুয়েল গনজালেস এমনটিই জানিয়েছেন ডাক্তাররা। বিরল এই রোগে আক্রান্ত শিশুটির পরিবার মেক্সিকোর প্যাসিফিক কোস্ট স্টেটের টেকোমান অঞ্চলে থাকে। শিশু লুইসের মায়ের নাম ইসাবেল পান্তোজা ও বাবা ম্যারিও গনজালেস।

শিশুটির বাবা-মা বলেছেন, জন্মের সময় লুইস ম্যানুয়েল গনজালেসের ওজন ছিল ৩.৫ কেজি। মাস দুই পেরোতেই লুইসের ওজন ১০ কেজিতে হয়ে যায়। এরপর পরবর্তী আট মাসে ওজন পৌঁছায় ১৮ কেজিতে।

শিশু লুইসের মা ইসাবেল জানান, ‘ভেবেছিলাম বুকের দুধ বেশি পরিমাণে পায় বলে শিশুটির ওজন বেড়ে যাচ্ছে। এখন তার চিকিৎসার জন্য অনেক খরচ লাগবে। এজন্য আর্থিক সহায়তা পেতে একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: