বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের কুকীর্তি ফাঁস!  » «   মায়ের পছন্দ ব্রাজিল, সমর্থক জয়ও  » «   পুলিশ কমিশনার‘ঈদগাহে ছাতা ও জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু নয়’  » «   ‘আমিও প্রেগনেন্ট হয়েছি, অনেকবার অ্যাবরশনও করিয়েছি’  » «   গুগল পেজ ইরর দেখায় কেন?  » «   রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সিইসি কে কোথায় ঈদ করছেন  » «   ইসি সচিব : তিন সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু ও ধলাই  » «   বিশ্বকাপের একদিন আগে বরখাস্ত স্পেন কোচ!  » «   ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে ৭ কি.মি. যানজট  » «   শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে আলিয়ার সোজা কথা!  » «   যে কারণে ইউনাইটেড হাসপাতালে যেতে চান খালেদা  » «   খালেদা চিকিৎসা চান নাকি রাজনীতি করছেন : সেতুমন্ত্রী  » «   যানজটের কথা শুনিনি, কেউ অভিযোগও করেননি  » «   ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান ‘বকশিসের নামে নীরব চাঁদাবাজি নেই’  » «  

জন্মের প্রথম ১০ মাসেই শিশুর ওজন ২৮ কেজি!



বিচিত্র ডেস্ক::জন্মের প্রথম ১০ মাস বয়সেই ওজন হয়েছে ৬২ পাউন্ড বা ২৮ কেজি। অবিশ্বাস্য শোনালেও এটাই বাস্তব মেক্সিকোর লুইস ম্যানুয়েল গনজালেসের জীবনে।

লুইস ম্যানুয়েল গনজালেস নামের এই শিশুটির ওজন অবিশ্বাস্য হারে দ্রুততার সঙ্গে বেড়েই চলেছে। সঙ্গে বাড়ছে তার ক্ষুদা। একটা সাধারণ শিশুর চেয়ে প্রায় ৬ গুণ বেশি খাবার খায় সে।

জন্ম থেকেই বিরল প্র্যাডার উইলি সিনড্রোমে আক্রান্ত লুইস ম্যানুয়েল গনজালেস এমনটিই জানিয়েছেন ডাক্তাররা। বিরল এই রোগে আক্রান্ত শিশুটির পরিবার মেক্সিকোর প্যাসিফিক কোস্ট স্টেটের টেকোমান অঞ্চলে থাকে। শিশু লুইসের মায়ের নাম ইসাবেল পান্তোজা ও বাবা ম্যারিও গনজালেস।

শিশুটির বাবা-মা বলেছেন, জন্মের সময় লুইস ম্যানুয়েল গনজালেসের ওজন ছিল ৩.৫ কেজি। মাস দুই পেরোতেই লুইসের ওজন ১০ কেজিতে হয়ে যায়। এরপর পরবর্তী আট মাসে ওজন পৌঁছায় ১৮ কেজিতে।

শিশু লুইসের মা ইসাবেল জানান, ‘ভেবেছিলাম বুকের দুধ বেশি পরিমাণে পায় বলে শিশুটির ওজন বেড়ে যাচ্ছে। এখন তার চিকিৎসার জন্য অনেক খরচ লাগবে। এজন্য আর্থিক সহায়তা পেতে একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: