শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নন্দলালের ভূমিকায় অবতীর্ণ হবেন না: ইসি রফিকুল  » «   এমপি হিসেবে শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন ডা. জাকিয়া  » «   রোহিঙ্গাদের নৃশংসতার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান মিয়ানমার সেনাপ্রধানের!  » «   যেসব শর্তে আত্মসমর্পণ করছেন ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ী  » «   নাসা আ্যপস চ্যালেঞ্জে বিশ্বসেরা শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়  » «   বাংলা একাডেমিতে আল মাহমুদের মরদেহ, শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে জোবায়ের অনুসারীদের ইজতেমা শেষ  » «   যেভাবে ভারতীয় সেনাবহরে হামলা চালায় জঙ্গিরা  » «   রোহিঙ্গা নিপীড়ন তদন্তে মার্চে বাংলাদেশ আসছে আইসিসি প্রতিনিধিদল  » «   ব্যাটিং ব্যর্থতায় সিরিজ হার বাংলাদেশের  » «   যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন ট্রাম্প  » «   টেকনাফে ইয়াবা কারবারিদের আত্মসমর্পণ আজ  » «   বিশ্ব ইজতেমা: প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত আজ  » «   ৩৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সিমেন্সের সঙ্গে চুক্তি  » «   ভালোবাসা দিবসে সিলেটে ‘জুটির মেলা’  » «  

ছয় হাজার নারীর সঙ্গে সম্পর্ক, অতঃপর….



চিত্র বিচিত্র ডেস্ক:: তার কাজই ছিল নারীদের ভুলিয়ে নাইটক্লাবে নিয়ে আসা।এভাবে প্রায় ছয় হাজার নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন মারিজিও জফান্তি।এ কারণে তিনি ইতালির সবচেয়ে সফল প্রেমিক হিসেবে পরিচিত হয়েছিলেন। সম্প্রতি তার চেয়ে বয়সে প্রায় ৪০ বছরের ছোট এক তরুণীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ সময় কাটানোর সময় তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

অলিভ ত্বকের আকর্ষণীয় দীর্ঘ চুলের দীর্ঘদেহী মারিজিও জফান্তি সহজেই নারীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেন। ১৯৮৬ সালে ইতালির এল স্প্রেসো নামে এক সংবাদপত্রে লেখা হয়, তিনি ইতালির সবচেয়ে সফল প্রেমিক।

ইতালির সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লেবয় খ্যাত ছিলেন ৬৩ বছর বয়সী মারিজিও। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ২৩ বছরের এক পর্যটকের সঙ্গে অন্তরঙ্গ সময় কাটানোর সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন মারিজিও জফান্তি।

মারিজিও ১৯৭০ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে এক নাইটক্লাবে কাজ করতে শুরু করেন। সে সময় তার কাজ ছিল, রাস্তায় যাতায়াত করছে এমন নারীদের সঙ্গে কথাবার্তা-আলাপ আলোচনা বাড়িয়ে তাদের নাইটক্লাবে আসার জন্য রাজি করানো।

সম্প্রতি ৬২ বছর বয়সেও এক ইউরোপিয়ান তরুণীর সঙ্গে তিনি ঘনিষ্ঠ হয়েছিলেন। এরপর এক পর্যায়ে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন এবং সেখানেই মারা যান।অসুস্থ হওয়ার পর ওই তরুণী জরুরি নম্বরে ফোন করেন। কিন্তু চিকিৎসকরা এসে বহু চেষ্টা করেও তাকে বাঁচাতে পারেননি।

ইতালির সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, এর আগে তিনি এভাবেই মৃত্যুবরণ করতে চেয়েছিলেন। বাস্তবেও তাই হলো।

সূত্র : ডেইলি মেইল

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: