বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রংপুর-৩ উপনির্বাচন: লাঙ্গলের ঘাঁটিতে আসিফের দিকেই ভোটের হাওয়া  » «   রিফাত হত্যা: যা বললেন সেই রিকশাচালক  » «   চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সুনামগঞ্জে অজ্ঞাতনামা যুবকের মরদেহ উদ্ধার  » «   বন্দরবাজার থেকে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আফগান প্রেসিডেন্টকে লক্ষ্য করে বোমা হামলা, নিহত ২৪  » «   বিভাগীয় শহরে হচ্ছে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্র  » «   মৌলভীবাজার থেকে হত্যা মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার  » «   হবিগঞ্জে বিজিবির অভিযানে ১৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার  » «   উপজেলা নির্বাচন: হবিগঞ্জ আ.লীগের ১০ বিদ্রোহী প্রার্থীকে শোকজের চিঠি  » «   রোমে যে কারণে আলোচিত প্রবাসী বাংলাদেশি তরুণ  » «   বিকেলে ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বিতর্কিত আইনে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী গ্রেপ্তার  » «   অপমানজনক বিতাড়ণের আগে সিনেট ও ডাকসু ছাড়ুন: শোভন-রাব্বানীকে ভিপি নুর  » «   পেঁয়াজ নেই, তবুও বিক্রির ঘোষণা টিসিবির!  » «  

ছোট পরিবর্তনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট পাশ আজ



নিউজ ডেস্ক:: বড় কোনো পরিবর্তন না হলেও ছোটখাটো পরিবর্তনে পাস হতে যাচ্ছে অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাবিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট।আজ বৃহস্পতিবার সংসদে এই বাজেট পাশ হবে।তবে এর আগে ছাঁটাই প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হবে।

এ বিষয়ে গত মঙ্গলবার অর্থমন্ত্রী সাংবাদিদের জানিয়েছিলেন, বাজেটে বড় ধরনের কোনো পরিবর্তন হবে না।কিছু কিছু বিষয়ে কাজ করছি।এগুলো খুব বড় কিছু না।তিনি বলেন, এটা এখন বাড়ানো হবে না, ভবিষ্যতেও বাড়ানো হবে না।কর্পোরেট ট্যাক্সে পরিবর্তন আনার তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই।

এ সময় মোবাইল বা ইন্টারনেটে ভ্যাট কমানোর বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, মোবাইলে তো আমার প্রস্তাবই অত্যন্ত ভালো।আইসিটির বেশির ভাগ ট্যাক্সই ৫ শতাংশ। আর বাকি সব জিরো এই ধরনের।এ বিষয়ে আইসিটি তো খুব সন্তুষ্ট। তবে এ বিষয়ে তাদের সঙ্গে আমার একটা বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে আরো কিছু প্রস্তাব ছিল। এগুলো প্রায়ই আমরা সংশোধন করব।এসব বিষয়ে ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার খুবই খুশি। আমরা আশা করছি যে আইসিটিতে আমরা ইয়াং জেনারেশনকে আরো বেশি আকর্ষণীয় করতে পারব।

এদিকে অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, প্রস্তাবিত বাজেটের বেশ কয়েকটি বিষয়ে ছোটখাটো পরিবর্তনের বিষয়ে প্রস্তাবনা দিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী।এর মধ্যে রয়েছে তৈরি পোশাক খাতের কর্পোরেট ও সবুজ শিল্প কর, আইসিটির ওপর বর্ধিত কর প্রত্যাহার অন্যতম।এছাড়া বিনিয়োগ বাড়ানো ও উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে গুরুত্বারোপ করতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। পরে সে আলোকেই বাজেট পাস হবে।

উল্লেখ্য, গত ৭ জুন আগামী অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা বাজেট প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী মুহিত।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: