সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জি কে শামীম ও খালেদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ  » «   ‘মোদি হলেন সন্ত্রাসী,’ হাউসটনে বিক্ষোভে শিখ-কাশ্মীরিরা (ভিডিও)  » «   সাপের ছোবল থেকে রক্ষা পেতে চা বাগানে স্বর্পভাস্কর্য  » «   মাছ উৎপাদনে বিশ্বে অষ্টম বাংলাদেশ  » «   কোরআনের উদ্ধৃতি দিয়ে চমকে দিলেন পুতিন  » «   নবীগঞ্জে ভুয়া সাংবাদিক মনি গ্রেপ্তার  » «   ফতুল্লার ‘জঙ্গি আস্তানায়’ অভিযান শুরু  » «   সৌদিতে শূলে চড়িয়ে শিরশ্ছেদ করে ১৩৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর  » «   কৃষিতে স্বাবলম্বী কামালবাজারের অনেক কৃষক  » «   মোহামেডানসহ মতিঝিলে চার ক্লাবে অভিযান  » «   তাহিরপুরে ১০টি গাঁজার বালিশ উদ্ধার  » «   ফ্রান্সে মসজিদে গাড়ি হামলা  » «   সদলবলে মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদলের নবনির্বাচিত সভাপতি-সম্পাদক  » «   মুসলিম যাত্রী থাকায় ফ্লাইট বাতিল করল আমেরিকান এয়ারলাইনস  » «   মধ্যরাতে বনানীতে শাবি ভিসিপুত্রের কাণ্ড!  » «  

ছেলে হত্যায় মা ফাহমিদার স্বীকারোক্তি



49নিউজ ডেস্ক :: দেড় বছরের শিশুসন্তান নিহাল সাদিক হত্যায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন মা ফাহমিদা মীর মুক্তি (৩৫)।

বুধবার ঢাকার সিএমএম আদালতের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এসএম মাসুদ জামানের কাছে ওই স্বীকারোক্তি দিলেন মা। পরে বিচারক ফাহমিদা মীর মুক্তিকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

দুই দফায় ৫ দিনের রিমান্ড শেষে এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উত্তরখান থানার ইন্সপেক্টর মো. আলমগীর হোসেন আদালতে এ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণের আবেদন করেন।

উল্লেখ্য, গত ১৮ এপ্রিল রাত সাড়ে ১২টার দিকে উত্তরখান থানাধীন মাস্টার পাড়ার সোসাইটি রোডের বাসায় খুন হয় দেড় বছরের শিশু নিহাল সাদিক।

পুলিশের ধারণা, স্বামী-স্ত্রীর পারিবারিক কলহের জের ধরে ঘুমন্ত শিশু নিহালকে খুন করেন তার মা মুক্তি। ছেলেকে খুন করে নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি।

গত ১৮ এপ্রিল মধ্যরাতে পুলিশ মুক্তিকে হেফাজতে নিয়ে প্রথমে উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। পরে রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন ১৯ এপ্রিল শিশুটির বাবা সৈয়দ সাজ্জাদ হোসেন মুরাদ বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন।

অন্যদিকে, আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগে ফাহমিদা মীর মুক্তির বিরুদ্ধে একটি মামলা করে পুলিশ।
হাসপাতাল আসামি মানসিক ও শারীরিকভাবে সুস্থ মর্মে ছাড়পত্র দিলে গত ২৯ এপ্রিল ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করে পুলিশ। আবেদনের ওপর শুনানি শেষে ২মে আদালত ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরপর গত ১৫ মে আদালত এ আসামির বিরুদ্ধে পুনরায় ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: