রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর হো‌টে‌লের সাম‌নে বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিএন‌পির বিক্ষোভ  » «   বিশ্বের চতুর্থ ভয়ঙ্করতম সংগঠন মাওবাদী!  » «   ফেঁসে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রে গ্রিন কার্ড আবেদনকারীরা  » «   শাবিপ্রবিতে ছাত্রী হলের পানিতে মিলছে কেঁচো-জোঁক!  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে বাস চাপায় নিহত ২, আহত ৩  » «   বনে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে ১১ সিংহের মৃত্যু  » «   তাবলিগের সংকট নিরসনে সরকারের পাঁচ নির্দেশনা  » «   গাজীপুরে বেতনের দাবিতে শ্রমিক বিক্ষোভ, মহাসড়ক অবরোধ  » «   শূন্যপদের সঠিক তথ্য দিচ্ছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো  » «   আজ ঢাকায় আসছেন বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট  » «   এবার ক্ষুধার্ত পদ্মার পেটে যাচ্ছে শিবচর  » «   আইসিসি নিজেই মিয়ানমারের বিচারে সক্ষম: জাতিসংঘ মহাসচিব  » «   নাইজেরিয়ায় কলেরা সংক্রমণ; ৯৭ জনের মৃত্যু  » «   ধানের শিষ এখন পেটের বিষ: ওবায়দুল কাদের  » «   যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত, তবে শান্তির পথও খোলা: পাকিস্তান আর্মি  » «  

ছেলের যাবজ্জীবন নেশার টাকা না পেয়ে মাকে হত্যা করল ছেলে



নিউজ ডেস্ক::কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের সাতমোড়া গ্রামে নেশার টাকা না পেয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ছেলে জাকির হোসেনকে (৩৬) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেছে কুমিল্লার আদালত।

বুধবার দুপুরে কুমিল্লার অতিরিক্তি জেলা ও দায়রার চতুর্থ আদালতের বিচারক নুরুননাহার কেগম শিউলি এ রায় প্রধান করেন। মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সাতমোড়া গ্রামের বেরীবাধ সংলগ্ন নিজ বাড়ীতে বিধবা মিনুয়ারা বেগম সন্তানদের নিয়ে বসবাস করতেন।

তার বড় ছেলে জাকির হোসেন মাদকাসক্ত হওয়ায় প্রতিনিয়তই মাদকের টাকার জন্য তাকে মারধর করত। পূর্বের মত মাদকের টাকার জন্য ২০১৬ সালের ১৭মে মা মিনুয়ারা বেগমকে মারধরের একপর্যায়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে জাকিরের ছোট ভাই শাকিল বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় মামলা করেন।

দীর্ঘ শুনানি শেষে বুধবার (৭ মার্চ) দুপুরে আদালত জাকির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করে। সরকার পক্ষের পিপি অ্যাডভোকেট রাজ্জাকুল ইসলাম জানান, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জাকিরের ছোট ভাই শাকিল বাদী হয়ে মামলা করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে বুধবার আদালত জাকির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: