মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
এমডিকে ‘ওয়াসার সুপেয় পানির শরবত’ খাওয়াতে এসেছেন জুরাইনবাসী  » «   শ্রীমঙ্গলে থামছে না অসাধু ব্যবসায়ীদের অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, নিশ্চুপ প্রশাসন!  » «   জাজিরা প্রান্তে বসল ১১তম স্প্যান, দৃশ্যমান ১৬৫০ মিটার  » «   দক্ষিণ সুরমায় ইজতেমার অনুমোদন এখনো মেলেনি  » «   সিলেটের ৯টি উপজেলায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু  » «   শোকে স্তব্ধ শ্রীলঙ্কায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩১১  » «   জিন তাড়ানোর বাহানায় যৌন সম্পর্ক গড়তো সেই পিয়ার  » «   ভারতের মিডিয়া ও বিজেপির প্রতি ক্ষুব্ধ শ্রীলঙ্কার নেটিজেনরা  » «   পড়াশোনা না করলে জীবনের অর্থ সংকীর্ণ হয়ে ওঠে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   এমডিকে ‘ওয়াসার সুপেয় পানির’ শরবত খাওয়াবেন জুরাইনবাসী  » «   হুমকি না থাকলেও সতর্ক আছে বাংলাদেশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   নকল তামাক পণ্য : হুমকিতে জনস্বাস্থ্য, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার  » «   ৬ দিনের সফরে সিলেটে পৌঁছেছেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ  » «   শাহজালাল বিমানবন্দরের টয়লেট থেকে ৪ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার  » «   ফেঞ্চুগঞ্জে ঘরে ঢুকে হত্যাচেষ্টা, ছুরিসহ আটক  » «  

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল মায়েরও



নিউজ ডেস্ক:: গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে।বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কেওয়া বকুলতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।নিহত সেলিনা আক্তার (৩৫) নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ থানার খান্না গ্রামের আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী ও তার ছেলে সেলিম হোসেন (১৫)। তারা কেওয়া বকুলতলা এলাকার আবুল হাসানের বাসায় ভাড়া থাকতেন।সেলিনা স্থানীয় পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন।

স্থানীয়রা জানান,আনোয়ারের ছয়টি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা রয়েছে।বাসার বারান্দায় তারা অটোরিকশায় চার্জ দিতেন।সকালে ছেলে সেলিম ঘুম থেকে উঠে বারান্দায় অসাবধানতাবশত অটোরিকশায় চার্জ দেয়া তারে জড়িয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়।

এ সময় ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে সেলিনাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন।পরে গুরুতর অবস্থায় বাড়ির লোকজন উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মো.আবু রায়হান বলেন,সকালে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার আগেই মা-ছেলের মৃত্যু হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: