বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
হিরো আলম পর্যন্ত ইসিকে হাইকোর্ট দেখায়, বোঝেন অবস্থা: ইসি সচিব  » «   কূটনীতিকদের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে ঐক্যফ্রন্ট  » «   নির্বাচনের সময় ব্যাংক বন্ধ থাকবে ৪ দিন  » «   একজন নির্বাচন কমিশনার কী বললেন দেখার বিষয় নয় : কাদের  » «   সিইসির বক্তব্যের প্রতিবাদ জানালেন মাহবুব তালুকদার  » «   সাহস থাকলে আমাকে গ্রেপ্তার করুন: ড. কামাল  » «   ভোটের দিন নেটের গতি কমানোর কথা ভাবছে ইসি  » «   আমরণ অনশন: হাসপাতালে লতিফ সিদ্দিকী  » «   লুনার প্রার্থিতা স্থগিতে ভাগ্য খুলেছে মুনতাসির-মুকাব্বিরের  » «   সু চির পুরস্কার ফিরিয়ে নিচ্ছে দক্ষিণ কোরীয় ফাউন্ডেশন  » «   তরুণ ও যুবকদের জন্য যে চমক আ. লীগ-বিএনপির ইশতেহারে  » «   নারায়ণগঞ্জে গ্যাসের আগুনে একই পরিবারের ৯ জন দগ্ধ  » «   আমার কিছু হলে দায়ী আপনারা মামা-ভাগ্নে: সিইসিকে গোলাম মাওলা রনি  » «   ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন: শেখ হাসিনা  » «   মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য অসত্য: সিইসি  » «  

ছাতকে মেয়ে মারার প্রতিশোধে শিক্ষক হাসপাতালে



3. KHAIRULছাতক প্রতিনিধি: ছাতকে মেয়েকে মারধোরের প্রতিশোধ হিসেবে মক্তব শিক্ষককে হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছেন তার বাবা। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক কৌতুহলের সৃষ্টি করেছে। জানাযায়, ছাতক সদর ইউনিয়নের আন্দারীগাঁও গ্রামের খাইরুল ইসলামের মেয়ে মিতালী বেগম (১০) আন্ধারীগাঁও জামে মসজিদের মক্তবের যেতে দেরী করে। এ অজুহাতে মক্তবের শিক্ষক ক্বারী আমির উদ্দিন বিন রফিক (২৮) তাকে মারধোর করেন। এ ঘটনা মিতালীর বাবা খাইরুল ইসলাম জানতে পেরে মসজিদে গিয়ে শিক্ষককে বেদম প্রহার করেন। শিক্ষকের বাড়ি দোয়ারাবাজার উপজেলার নরসিংপুর ইউনিয়নের চাইরগাঁও গ্রামে। ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন মক্তব শিক্ষককে ছাতক হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ অভিযোগে গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে খাইরুলকে গণধোলাই দেয়া হয়েছে। খবর পেয়ে ছাতক থানার এসআই মুর্শেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে থানায় কোন মামলা হয়নি। মিতালী বেগম আন্ধারীগাঁও রেজিঃপ্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী বলে জানাগেছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: