রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে : ওবায়দুল কাদের  » «   নিজস্ব ভবন পেল আওয়ামী লীগ  » «   বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ : শুরু হচ্ছে নিয়ন্ত্রণ হস্তান্তরের কাজ  » «   ‘রাতের অন্ধকারে বছরের পর বছর ধর্ষণ করেছে বাবা’  » «   প্রধানমন্ত্রীর উপলব্ধি যথার্থ : রিজভী  » «   স্কুলের গেটে জলাবদ্ধতা, ছাত্রদের সড়ক অবরোধ  » «   তানোরে পুলিশের স্ত্রীর আত্মহত্যা  » «   কুমিল্লায় যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার  » «   সরিষাবাড়ীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «   শ্রীপুরের বাড়িটিতে ৪টি বোমার বিস্ফোরণ  » «   প্রেমিকের খোঁজ নিতে গিয়ে প্রেমিকার করুণ পরিণতি!  » «   সমকামী বিয়ে ব্রিটিশ রাজ পরিবারে  » «   এবার বিমানেও ভিক্ষাবৃত্তি!  » «   প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিদায়ী সেনা প্রধানের সাক্ষাৎ  » «   মিয়ানমারকে আল্টিমেটাম  » «  

ছবি পরীক্ষা করবে ফেসবুক



তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:: বর্তমানে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা কম নয়। বাংলাদেশেও দিনদিন বাড়ছে ব্যবহারকারীর সংখ্যা। কেউ কেউ ব্যবহার করছেন একাধিক আইডি। সে হিসেবে ফেক আইডির সংখ্যাও কম নয়। আপনার আইডিটি সচল রাখতে নিম্নোক্ত বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে।

ফেকবুক অ্যাকাউন্টে নিজের মুখমণ্ডলের পরিষ্কার ছবি দিতে হবে। কারণ ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, এর মাধ্যমে জেনুইন অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররাই সাইটে ঢুকতে পারবেন। তবে যখনই সন্দেহজনক লগইন হবে বা চেষ্টা করা হবে; তখনই ফেসবুক ব্যবহারকারীদের বো হবে তাদের পরিচয়ের প্রমাণ দিতে। ওয়েবসাইটে পরিষ্কার ছবি দেওয়ার মাধ্যমেই কাজটি সম্পূর্ণ করতে বলা হবে।

ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানান, ওয়েবসাইটে এখন পরিষ্কার ছবি ব্যবহার করতে হবে। সঠিক ব্যবহারকারীকে চিহ্নিত করতে এটিও একটি ধাপ। এর মাধ্যমেই সন্দেহজনক কোনো পদক্ষেপ বন্ধ করা সম্ভব। যদি আপনি ফেসবুক ব্যবহারকারী হন, আপনাকেও একই পদ্ধতির মধ্য দিয়ে যেতে হবে। আপনাকে হঠাৎই বলা হতে পারে আপনার মুখমণ্ডলের একটি পরিষ্কার ছবি আপলোড করতে।

ফেসবুক সূত্রে জানা যায়, কোনো ব্যবহারকারী ছবি আপলোড করার পর ফেসবুক তা পরীক্ষা করে দেখবে। ফটো টেস্ট অথেন্টিকেশন প্রসেসের মাধ্যমে তা করা হবে। এর মাধ্যমেই ফেসবুক প্রোফাইল অথেন্টিক কিনা তা জানাও সম্ভব।

ফটো টেস্ট অথেন্টিকেশন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা না গেলেও মুখপত্রের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ছবি পরীক্ষা করার পর তা পুরোপুরিভাবে সার্ভার থেকে মুছে ফেলা হবে। তবে এই পদ্ধতি সবার জন্যই প্রয়োগ করা হবে, নাকি সন্দেহজনক কারো জন্য প্রয়োগ করা হবে, তা পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: