রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার খবরটি ‘টোটালি ফলস’  » «   শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী  » «   জামায়াত নতুন নামে পুরনো চরিত্রে ফিরে আসে কিনা তা ভাবনার বিষয়  » «   সুস্থ থাকলে শেখ হাসিনার বিকল্প দরকার নেই  » «   নন্দলালের ভূমিকায় অবতীর্ণ হবেন না: ইসি রফিকুল  » «   এমপি হিসেবে শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন ডা. জাকিয়া  » «   রোহিঙ্গাদের নৃশংসতার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান মিয়ানমার সেনাপ্রধানের!  » «   যেসব শর্তে আত্মসমর্পণ করছেন ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ী  » «   নাসা আ্যপস চ্যালেঞ্জে বিশ্বসেরা শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়  » «   বাংলা একাডেমিতে আল মাহমুদের মরদেহ, শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে জোবায়ের অনুসারীদের ইজতেমা শেষ  » «   যেভাবে ভারতীয় সেনাবহরে হামলা চালায় জঙ্গিরা  » «   রোহিঙ্গা নিপীড়ন তদন্তে মার্চে বাংলাদেশ আসছে আইসিসি প্রতিনিধিদল  » «   ব্যাটিং ব্যর্থতায় সিরিজ হার বাংলাদেশের  » «   যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন ট্রাম্প  » «  

চুলের কন্ডিশনার রয়েছে আপনার রান্না ঘরেই!



লাইফস্টাইল ডেস্ক::নানা রকম নিত্য নতুন প্রসাধনীর ব্যবহার, চুলে কালার করা, চুল স্ট্রেইট করা, অতিরিক্ত দূষণ, নিম্নমানের জলের ব্যবহার এই সবকিছুর কারনে আপনার চুল ক্রমশ তার নিজের সৌন্দর্য হারাতে বসেছে, তবে সময়ের অভাব এবং আমাদের নিজেদের অবহেলাও এর অন্যতম একটি কারণ। সঠিক উপায় না জেনে বাজার চলতি যে কোনো প্রোডাক্টের ব্যবহার আপনার চুলের আরও ক্ষতি করে চলেছে।

রান্নাঘরে থাকা সেইসব প্রাকৃতিক উপকরন যেগুলোর পুষ্টিগুন আমাদের কাছে একেবারেই অজানা। কিন্তু সেই উপকরনের ব্যবহারেই আপনি পেতে পারেন সুন্দর ঝলমলে চুল। আর এইসব উপকরনের কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও নেই।

হেয়ার কন্ডিশনার চুলের জন্য অতি প্রয়োজনীয় একটি প্রোডাক্ট। সাধারণত শ্যাম্পু করার ফলে চুল থেকে যাবতীয় ময়লা ও জীবাণু বের হয়ে যায়, একইসাথে চুল খানিকটা রুক্ষ হয়ে পরে, সেক্ষেত্রে কন্ডিশনার ব্যবহারে চুল তার ময়সচার ফিরে পায়। ফলে, চুলের আগা ফেটে যাওয়া, চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া কিংবা ফ্রিজি চুলের হাত থেকে কিছুটা হলেও নিস্তার পাওয়া যায়। নীচে রইল চারটি ঘরোয়া উপকরণ, জেনে নিন-

১) অ্যাপেল সিডার ভিনিগার ও মধু-
একটা পাত্রে অল্প পরিমানে জল নিয়ে তাতে এক চা চামচ অ্যাপেল সিডার ভিনিগার ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর ঐ মিশ্রনে দুই চা চামচ মধু দিয়ে পুনরায় ভালো করে মিশিয়ে মিশ্রন টি রেখে দিন। স্নানের সময় শ্যাম্পু করার পর ঐ মিশ্রন টি ভালো করে পুরো চুলে লাগিয়ে তিন থেকে চার মিনিট রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ভালো করে চুল ধুয়ে ফেলুন।

২) দই, কলা ও আমন্ড তেল-
একটা পাকা কলা নিয়ে সেটাকে ভালো করে চটকে পেস্ট বানাতে হবে,এরপর তাতে এক চামচ দই এবং এক চামচ আমন্ড তেল দিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে মিশ্রন তৈরি করে রেখে দিন। স্নানের পর পুরো চুলে কন্ডিশনারের মত করে লাগিয়ে হাত দিয়ে মেসেজ করুন। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

৩) শিয়া বাটার ও অলিভ অয়েল-
অর্ধেক কাপ শিয়া বাটারের সাথে এক চা চামচ অলিভ অয়েল ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার চুলের গোড়া বাদ দিয়ে পুরো চুলে ঐ মিশ্রন ভালো করে লাগিয়ে দুই থেকে তিন মিনিট রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

৪) অ্যালোভেরা, দই ও সিসেমি অয়েল-
একটি পাত্রে তিন চা চামচ অ্যালোভেরা জেল এর সাথে এক চা চামচ দই এবং একই পরিমান সিসেমি অয়েল নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনারের মত করে চুলে লাগিয়ে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: