মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আমার কিছু হলে দায়ী আপনারা মামা-ভাগ্নে: সিইসিকে গোলাম মাওলা রনি  » «   ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন: শেখ হাসিনা  » «   মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য অসত্য: সিইসি  » «   ভোটের ফলাফল প্রকাশে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় মইনুলের জামিন  » «   বাংলাদেশের বিজয় দিবসকে অবজ্ঞা শেহবাগের!  » «   সারাদেশে ১ হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন  » «   প্রার্থিতা নিয়ে রিট খারিজ, নির্বাচন করতে পারবেন না খালেদা জিয়া  » «   জামায়াতের ২২ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলে রুল  » «   সিলেটে প্রাধান্য উন্নয়ন ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার  » «   বিএনপির ইশতেহার ঘোষণা করছেন ফখরুল  » «   আপিলেও ভোটের পথ খুলল না ইলিয়াসপত্নী লুনার  » «   যেসব ‘বিশেষ’ অঙ্গীকার থাকছে আ. লীগের নির্বাচনি ইশতেহারে  » «   আ.লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করছেন শেখ হাসিনা  » «   সিলেটে বিএনপি নেতাকর্মীদের মারধর ও ধরপাকড়ের অভিযোগ  » «  

চিলিতে ব্যাপক ভূমিধস, নিহত ৫, নিখোঁজ ১৫



আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::চিলির দক্ষিণাঞ্চলে ভারি বর্ষণে সৃষ্ট ভূমিধসে অন্তত পাঁচজন নিহত ও ১৫ জন নিখোঁজ হয়েছেন। শনিবার ভোরে দেশটির হ্রদ এলাকার প্রত্যন্ত গ্রাম ভিলা সান্তা লুসিয়ায় এ ঘটনা ঘটে। খবর বিবিসি, রয়টার্সের।

ছোট ওই গ্রামটির কাছে একটি জাতীয় উদ্যান আছে; স্থানটি পর্যটকদের পছন্দের জায়গা। নিহতদের মধ্যে চারজন চিলির নাগরিক ও একজন পর্যটক বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ওই পর্যটকের নাম ও তিনি কোনো দেশের নাগরিক তা প্রকাশ করা হয়নি।

ঘটনার পর ওই এলাকায় জরুরি অবস্থা জারি করেছেন চিলির প্রেসিডেন্ট মিশেল বাশেলেত। ভূমিধসের পর ওই এলাকায় অবস্থানরত কয়েক হাজার মানুষ আটকা পড়েছেন। বিদ্যুৎ না থাকায় পুরো দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন তারা।

প্রেসিডেন্ট বাশেলেত বলেছেন, ভিলা সান্তা লুসিয়া গ্রামের লোকজনকে রক্ষার জন্য যা যা করা দরকার, তার সবকিছু করার জন্য উদ্ধারকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছি।

এলাকাটি চিলির রাজধানী সান্তিয়াগো থেকে প্রায় ১,১০০ কিলোমিটার দক্ষিণে। গ্রামটির অবস্থান যে উপত্যকায়, সেটির অংশ বিশেষ চারপাশে ঘিরে থাকা পবর্তগুলো থেকে ধসে পড়া বিপুল পরিমাণ কাদার নিচে চাপা পড়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনার আগের ২৪ ঘন্টায় ওই এলাকায় অস্বাভাবিক ভারি বৃষ্টিপাত হয়েছে।

আটকা পড়া বহু মানুষকে হেলিকপ্টারে তুলে নিকটবর্তী চাইদেন শহরে নিয়ে গেছেন উদ্ধারকারীরা। অপরদিকে বিধ্বস্ত গ্রামটিতে জীবিতদের খোঁজ করছেন অন্যান্য উদ্ধারকারীরা।

গ্রামটির কাছেই করকোভাদো জাতীয় উদ্যান। আগ্নেয়গিরি, গিরিখাত ও বনাচ্ছাদিত উদ্যানটিতে প্রতি বছর বহু পর্যটকের সমাগম হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: