বৃহস্পতিবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ঈদ উপলক্ষে জালনোট ধরতে ব্যাংকগুলোকে ১১ নির্দেশনা  » «   গণঅভ্যুত্থানঃ লিবিয়ায় ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড  » «   চার রিকশাকে চাপা দিয়ে পালালো কার চালক  » «   ১৫ আগস্ট কেন ভারতের স্বাধীনতা দিবস?  » «   খালেদার জন্মদিনে ফখরুল‘প্রাণ বাজি রেখে লড়াই করতে হবে’  » «   রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু  » «   ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট  » «   ঢাকায় ইলিশের কেজি মাত্র ৪০০ টাকা!  » «   অস্ট্রেলিয়ান সিনেটে প্রথম মুসলিম নারী  » «   প্রধানমন্ত্রী নয়, ইসির নির্দেশনায় চলবে প্রশাসন : নাসিম  » «   সৌদি আরবে আরও ৫ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু  » «   মৃত পুরুষকে বিয়ে করলেন নারী, এরপর…  » «   যা করবেন সন্তানকে বুদ্ধিমান ও চটপটে বানাতে  » «   নিউইয়র্কে লাঞ্ছিত ইমরান এইচ সরকার  » «   কুরবানির গোশত অন্য ধর্মাবলম্বীকে দেওয়া যাবে?  » «  

চবির বি-১ ইউনিটের প্রশ্নেও ‘ঝাপসা’ জালিয়াতি



চবির বি-১ ইউনিটের প্রশ্নেও ‘ঝাপসা’ জালিয়াতি

ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্রে জালিয়াতির অভিযোগ থেকে  বের হতে পারছে না চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)।  সি-৩ ইউনিটের ‘ঝাপসা’ জালিয়াতির পর কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের অধীন  বি-১ ইউনিটে ফের একই রকম জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে।

পরীক্ষায় অংশ নেয়া একাধিক শিক্ষার্থীর অভিযোগের ভিত্তিতে বি-১ ইউনিটের সেট -২ এর প্রশ্ন যাচাই বাছাই করে দেখা যায়, সম্ভাব্য ৫টি উত্তরের মধ্যে সঠিক উত্তরটি তুলনামূলক ঝাপসা।  শুধু যে একটি প্রশ্নের উত্তরে এমন তা নয়। ধারাবাহিকভাবে ১০০টি প্রশ্নের সঠিক উত্তর সুকৌশলে এমন ঝাপসা করে দেয়া হয়। জালিয়াতি চক্রটি  এতোটাই সুদক্ষ যে স্বাভাবিকভাবে বিষয়টি সবার চোখে পড়বে না। একটু খেয়াল করলেই বিষয়টি চোখে পড়বে।

বি-১ ইউনিটে পরীক্ষায় অংশ নেয়া রাফসান মাহমুদ নামের এক শিক্ষার্থী জাগো নিউজকে বলেন, পরীক্ষার হলে থাকার সময় মনে করেছি এটা ছাপানোর কোনো ভুল। পরে প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর মিলিয়ে দেখার পর বিষয়টি বুঝতে পারি। ঠিক একই রকম অভিযোগ করে উক্ত ইউনিটে পরীক্ষা দেয়া একাধিক শিক্ষার্থী।

এদিকে, গত ২৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হওয়া বি-১ ইউনিটের পরীক্ষায় ১০ হাজার ৮৩৫ জন শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়। সোমবার এই ইউনিটের উত্তীর্ণ হওয়া শিক্ষার্থীদের সাক্ষাতকার অনুষ্ঠিত হয়।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এই প্রতিবেদককে বলেন, বিষয়টি নিয়ে তুমি আমার অফিসে এসো। এসব বিষয় মোবাইলে আলোচনা করা সম্ভব নয়।

একই বিষয়ে কলা ও মানবিদ্যা অনুষদের ডিন ও ভর্তি কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. সেকান্দর চৌধুরী জাগো নিউজকে বলেন, এতো দিন পর কীসের অভিযোগ? আমাদের কাছে কেউ কোনো অভিযোগ দেয় নি। তাছাড়া আজকে বি-১ ইউনিটের সাক্ষাতকার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ধরনের অভিযোগ এখন উঠার কোনো প্রশ্নই আসে না।`

সম্প্রতি সি-৩ ইউনিটের প্রশ্নপত্রেও উত্তর ঝাপসা থাকার অভিযোগ উঠার পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সাক্ষাতকার স্থগিতসহ দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: