মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
কক্সবাজার শরণার্থী শিবির পরিদর্শনরোহিঙ্গাদের নিয়ে প্রিয়াঙ্কার আবেগঘন স্ট্যাটাস  » «   যেভাবে ফ্রিজে খাবার রাখবেন!  » «   আইপিএলের ‘ব্যর্থ একাদশ’  » «   নির্যাতন থেকে বাঁচতে থানার ছাদ থেকে যুবকের লাফ!  » «   ‘মৎসকন্যা’ আর বাঁচল না!  » «   একাদশ সংসদ নির্বাচনইফতার পার্টি থেকেই শুরু ভোটের রাজনীতি  » «   দুই মামলায় জামিন চেয়ে খালেদা জিয়ার আবেদন  » «   বাপ-ছেলে মিলে তরুনীকে যৌন নির্যাতন  » «   রাজীবের ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশ আপিল বিভাগে স্থগিত  » «   রোজা নিয়ে ৬টি ভুল ধারণা  » «   ‘সে যে এত বড় প্রতারক, তা আমার জানা ছিল না’  » «   ছাত্রের সঙ্গে শিক্ষিকার অন্তরঙ্গ ছবি, ফেসবুকে তোলপাড়!  » «   বিশ্বকাপ সরাসরি দেখাবে যেসব টিভি চ্যানেল  » «   নিজের ঘরের মাদক ব্যবসায়ীদের ধরুন  » «   সেলিমা রহমানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি  » «  

চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা!



নিউজ ডেস্ক::বরিশালে গৌরনদী উপজেলার দীক্ষণ বিজয়পুর এলাকায় চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীর আন্ত:সত্ত্বা হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। জানা যায় ভয়ভীতি ও প্রলোভন দেখিয়ে অব্যাহত ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে চতুর্থ শ্রেণির এই স্কুলছাত্রী (১২)। ধর্ষণের কারণে ৫ মাসের আন্ত:সত্ত্বা ওই স্কুলছাত্রীর বাবা থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। দায়ের করা মামলায় অভিযুক্ত আবু তালেব সরদারকে (৫৮) গ্রেফতার করেছে গৌরনদী থানা পুলিশ।

গৌরনদী থানার ওসি মো. ফিরোজ কবির, গত শুক্রবার রাতে মামলা দায়ের করার পর ওই রাতেই তাকে গ্রেফতার করার কথা নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানান, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ বিজয়পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন প্রলোভন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে প্রতিবেশী আবু তালেব সরদার। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে সে। অত:পর সেই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। তার বাব-মায়ের চোখে মেয়ের অস্বাভাবিক শারীরিক বৃদ্ধির বিষয়টি নজরে পড়ে। তারপরে তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে পরিবারের সদস্যরা জানতে পারেন ওই ছাত্রী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। স্কুল ছাত্রী তার বাবা মাকে সব ঘটনা খুলে বলে। এরপর শুক্রবার রাতেই স্কুল ছাত্রীর বাবা থানায় মামলা দায়ের করার পর গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত আবু তালেবকে।

ওসি ফিরোজ কবির আরো জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত তালেব শিশু ধর্ষণের কথা স্বীকার করে। ওই মামলায় শনিবার দুপুরে আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেণি করা হয়েছে। ধর্ষিতাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য প্রথমে শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে ২২ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণের জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: