রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে ডাক্তারদের প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ, ফার্মেসিতেই চিকিৎসা  » «   ৯ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত  » «   এবার স্পেনও ছাড়ালো চীনকে, ২৪ ঘণ্টায় ৭৩৮ মৃত্যু  » «   সিলেট বিভাগে বৃহস্পতিবার থেকে গণপরিবহন বন্ধ  » «   করোনা মোকাবিলায় দেশে দেশে লকডাউন  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি, করোনা বদলে দিচ্ছে রাজনীতি  » «   খালেদার মুক্তির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাল যুক্তরাষ্ট্র  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তিতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক দেখছেন ড. কামাল  » «   করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে গ্রিসে লকডাউন  » «   বান্দরবানের ৩ উপজেলা লকডাউন  » «   ইতালিতে একদিনে ৭৪৩ জনের মৃত্যু  » «   ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮৬ মৃত্যু  » «   নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত ২০ হাজার ছাড়াল  » «   সাধারণ ছুটিতে চালু থাকবে ব্যাংক  » «   করোনাভাইরাস: উৎকণ্ঠিত সিলেট, উদ্বিগ্ন মানুষ  » «  

চট্টগ্রামে ১৪ হাজার ইয়াবাসহ সেনাসদস্য আটক



চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়ায় একটি প্রাইভেটকার তল্লাশি করে ১৪ হাজার পিস ইয়াবাসহ এক সেনাসদস্যকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে পটিয়া উপজেলার ইন্দ্রপোল এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

আটক ওই সেনাসদস্যের নাম এস এম ইব্রাহিম হোসেন (৩৩)। সার্জেন্ট পদবির এই সেনাসদস্য ঢাকার মিরপুরের ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের কমান্ড্যান্টের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএ) হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার গোবিন্দরবিল এলাকার ইমান উদ্দিনের ছেলে।

এ বিষয়ে পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বোরহান উদ্দিন এ প্রতিবেদককে বলেন, পুলিশের কাছে তথ্য ছিল কক্সবাজার থেকে ইয়াবার একটি চালান ঢাকা যাবে। তাই পটিয়ার বাইপাস সড়কের ইন্দ্রপোল এলাকায় তল্লাশি চলছিল। এ সময় কক্সবাজার থেকে একটি প্রাইভেটকার চট্টগ্রামের দিকে দ্রুতগতিতে যাওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ কারটিকে থামানোর সংকেত দেয়ার পরও সেটি এগিয়ে যেতে থাকে। গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম ধাওয়া দিয়ে কারটিকে আটকায়। কার থামানোর পর যাত্রীর আসনে বসে থাকা যুবক নিজেকে সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট হিসেবে পরিচয় দেন। পরে কার তল্লাশি করে যাত্রীর আসনের নিচ থেকে দুই বান্ডিলে ১৪ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে ইব্রাহিম হোসেন পুলিশকে জানান, উদ্ধার ইয়াবাগুলো মিরপুর-১ নম্বর এলাকায় কাজল নামে এক ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা ছিল। সেজন্য শুক্রবার সকালে তিনি ঢাকা থেকে বিমানে কক্সবাজার আসেন। একই সঙ্গে সড়কপথে কক্সবাজার পৌঁছায় তার প্রাইভেটকারটিও।

তিনি আরও জানান, আজ দুপুরে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। দুই মাস আগে একইভাবে তিনি ইয়াবার আরও একটি চালান কক্সবাজার থেকে ঢাকায় নিয়ে যান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: