মঙ্গলবার, ১৯ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের কুকীর্তি ফাঁস!  » «   মায়ের পছন্দ ব্রাজিল, সমর্থক জয়ও  » «   পুলিশ কমিশনার‘ঈদগাহে ছাতা ও জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু নয়’  » «   ‘আমিও প্রেগনেন্ট হয়েছি, অনেকবার অ্যাবরশনও করিয়েছি’  » «   গুগল পেজ ইরর দেখায় কেন?  » «   রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সিইসি কে কোথায় ঈদ করছেন  » «   ইসি সচিব : তিন সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু ও ধলাই  » «   বিশ্বকাপের একদিন আগে বরখাস্ত স্পেন কোচ!  » «   ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে ৭ কি.মি. যানজট  » «   শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে আলিয়ার সোজা কথা!  » «   যে কারণে ইউনাইটেড হাসপাতালে যেতে চান খালেদা  » «   খালেদা চিকিৎসা চান নাকি রাজনীতি করছেন : সেতুমন্ত্রী  » «   যানজটের কথা শুনিনি, কেউ অভিযোগও করেননি  » «   ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান ‘বকশিসের নামে নীরব চাঁদাবাজি নেই’  » «  

চট্টগ্রামে দুই শিশুকে ৩ মাস ধরে ধর্ষণ



চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে দুই পরিবারের দুই শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. হোসেন (৩৬) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের শিকার মেয়ে দুটির বয়স মাত্র ৭ ও ৯।

মঙ্গলবার (১৩ই মার্চ) দুপুরে আদালতে তোলার পর যুবক মো. হোসেন দুই শিশুকে তিন মাস ধরে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দেয়।

হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর আদালতে ধর্ষক মো. হোসেনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ধর্ষক মো. হোসেন দুই কন্যা শিশুকে তিন মাস ধরে ধর্ষণের স্বীকারোক্তি পুলিশকেও দেয়। জবানবন্দির পর আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

ওসি জানান, মো. হোসেনের বাড়ী কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানায়। তার পিতার নাম রাকিব সুলতান। সে একজন পোশাক শ্রমিক। কর্মসূত্রে দীর্ঘদিন ধরে হাটহাজারীর থানার দক্ষিণ কুয়াইশ এলাকার আমগাছ তলা এলাকায় বসবাস করে আসছিল।

গত সোমবার স্থানীয় ইউপি মেম্বার লোকমান হাকিম দুই পরিবারের দুই শিশুকে ধর্ষণের কথা পুলিশকে জানায়। পুলিশ রাতে অভিযান চালিয়ে মো. হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ইউপি মেম্বার লোকমান হাকিম জানান, ধর্ষক মো. হোসেন দক্ষিণ কুয়াইশ এলাকার বসবাস করার সুযোগে স্থানীয় দুই পরিবারের দুই কন্যা শিশুকে ধর্ষণ করে। যাদের একজনের বয়স ৭ ও অন্য জনের বয়স ৯ বছর। গত ৭ই মার্চ ৯ বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণকালে তাদের পরিবার ধরে ফেলে। পরে অপর পরিবারের ধর্ষিতা শিশুও ধর্ষণের শিকার হওয়ার কথা জানায়। যা পুলিশকে জানানোর পর মো. হোসেনকে গ্রেপ্তার করে।

উল্লেখ্য, গত রবিবার (১১ মার্চ) বিকালে একই উপজেলার ধলই ইউনিয়নের কাটিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন করে হত্যার উদ্দেশ্যে উপূর্যপুরি ছুরিকাঘাত করে সেপটিক ট্যাংকে ফেলে দেয় ওই স্কুলের দপ্তরি আপন চন্দ্র মালী (৫০)। এ ঘটনায় চট্টগ্রামজুড়ে ব্যাপক তোলপাড় চলছে। সূত্র: মানবজমিন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: