বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দিল্লির বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সংঘর্ষে চার জন নিহত ও ৫০ জন আহত  » «   পুলিশের কব্জায় অটোরিকশা, মায়ের ক্যান্সার চিকিৎসায় শেষ সম্বলও বিক্রি  » «   ১০ লাখ শিক্ষার্থী পাবে ২৯২ কোটি টাকা  » «   ৩৪০০ টাকার পাসপোর্ট ফি ৫২০০ টাকা চেয়ে দুদকের হাতে ধরা  » «   কিশোরগঞ্জে ভাবিকে হত্যার দায়ে দেবরের মৃত্যুদণ্ড  » «   ক্ষমতাসীনরা দেশকে অন্ধকারের দিকে নিয়ে যাচ্ছে  » «   চট্টগ্রামে শিশু গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু  » «   মামলা তুলে না নেয়ায় স্ত্রীকে মেরেই ফেললেন স্বামী  » «   ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে চাকরি, চার পুলিশ সদস্য কারাগারে  » «   করোনাভাইরাস : জাপানি প্রমোদতরীর আরও এক যাত্রীর মৃত্যু  » «   বঙ্গবন্ধু উপাধির ৫১ বছর  » «   ঢাকা-সিলেট ৬ লেনে এডিবির অর্থ ফেরত যাওয়ার শঙ্কা  » «   বাঈজী সরদারনি যুব মহিলালীগ নেত্রী পাপিয়ার উত্থান যেভাবে  » «   কী আছে পাপিয়ার ভিডিও ক্লিপে?  » «   ইতালিতে করোনায় আক্রান্ত ৭৯  » «  

চকরিয়ায় হাতি হত্যা, আসামির বাড়িতে গভীর রাতে হাতির পাল!



14. hathiনিউজ ডেস্ক::
চকরিয়ায় বন্যহাতি হত্যার ঘটনায় মামলা হলেও এখনো কোন আসামি গ্রেফতার হয়নি। তবে আসামি গ্রেফতারে পুলিশের বদলে গভীর রাতে আসামির বাড়িতে হানা দিয়েছে একটি হাতির পাল। এ ঘটনায় এলাকার লোকজনের মাঝে উদ্বেগ-উৎকন্ঠা দেখা দিয়েছে।

এলাকাবাসি জানায়, উপজেলার দক্ষিন সুরাজপুর এলাকায় গত ১৫ ডিসেম্বর বিদ্যুৎ তারে জড়িয়ে দুর্বৃত্তরা একটি বন্যহাতিকে হত্যা করে। পরে মৃতদেহটি এলাকার তামাক ক্ষেতে মাটি চাপা দেয়। মাটি চাপা দেয়ার দুইদিন পর বন্যহাতির একটি পাল গভীর রাতে মাটি থেকে মৃত হাতির দেহটি উত্তোলন করেন। ১৭ ডিসেম্বর রাতে একই চক্র উত্তোলনকৃত হাতির দেহটি ফের মাটি চাপা দেন। এ ঘটনার খবর পেয়ে ১৯ ডিসেম্বর সকালে ফাসিয়াখালী রেঞ্জের বনকর্মীরা তামাক ক্ষেতের মাটির ভেতর থেকে বন্যহাতির মরদেহটি উত্তোলন করেন। এ ঘটনায় কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের চকরিয়া উপজেলার মানিকপুর বনবিট কর্মকর্তা ফরিদ আহমদ বাদি হয়ে ২০ ডিসেম্বর থানায় পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা রুজু করেন।

মামলায় আসামি করা হয়, দক্ষিন সুরাজপুরের হাজী নুরুল কবিরের ছেলে জসিম উদ্দিন, ছৈয়দ নুর প্রকাশ লেদুর ছেলে আবু তৈয়ব, দক্ষিন কাকারা এলাকার ফকির মোহাম্মদের ছেলে, নুরুল আলম, নুরুন্নবী এবং আবদুল মান্নানকে।
এলাকাবাসি জানায়, মামলা হলেও আসামিদের মধ্যে কাউকে পুলিশ এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি। ফলে পুলিশের বদলে আসামি গ্রেফতারে তাদের বাড়িতে হানা দিচ্ছে বন্যহাতির পাল। গত ২৮ ডিসেম্বর রাতে বন্যহাতির একটি পাল মামলার আসামি আবু তৈয়বের বাড়িতে হানা দেয়। ওই সময় বাড়ির লোকজন ভয়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয় সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম জানান, তাকে এলাকার লোকজন জানিয়েছেন মামলার আসামি তৈয়বের বাড়িতে হাতির পাল হানা দিয়েছে। এঘটনার পর এলাকার লোকজনের মাঝে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।
চকরিয়া থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, বন্যহাতির হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ঘটনার পর অভিযুক্তরা পালিয়ে থাকায় গ্রেফতার করতে একটু বিলম্ব হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: