রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

ঘুমের মধ্যে কথা বলা-হাঁটা এক ধরনের প্যারাসমনিয়া



Ghum_BG_258929148নিউজ ডেস্ক: লক্ষণ:আপনার নিজের পক্ষে বোঝা কঠিন আপনি ঘুমের মধ্যে কথা বলেন কিনা। যারা আপনার সাথে ঘুমায় তারাই বলতে পারে।

ঘুমের মধ্যে কয়েকটি পর্যায় আছে। এর যেকোনো পর্যয়ে মানুষ কথা বলতে পারে। সাধারণত এটা ক্ষতিকর না, তবে কখনও কখনও স্লিপ ডিজঅর্ডার বা স্বাস্থ্য বিপর্যয়ের ইঙ্গিত বহন করে।

রেম স্লিপ বিহেভিয়ার ডিজঅর্ডার (জইউ) আর নাইট টেরর (রাতে ঘুমের মধ্যে ভয় পাওয়া) এই দুই অবস্থায় সাধারণত মানুষ ঘুমের মধ্যে চিৎকার করে। নাইট টেররের আরেকটা প্রচলিত নাম স্লিপ টেরর। এখানে আক্রান্ত ব্যক্তি ভয়ঙ্কর স্বপ্ন দেখে হাত-পা ছোড়ে, চিৎকার করে ঘুমের মধ্যে। এই সময় তাকে সহজে ঘুম থেকে ডেকে তোলা যায় না।

বাচ্চারা সাধারণত এতে আক্রান্ত হলে ঘুমের মধ্যে হাঁটে। আক্রান্ত ব্যক্তি ভয়ে চিৎকার করে মাঝে মাঝে ভয়ঙ্কর আচরণ করে। কারও কারও ঘুমের মধ্যে কথা বলার পাশাপাশি ঘুমের মধ্যে হেঁটে চলে বেড়ানো এবং খাওয়ার অভ্যাস থাকে। সকালে দেখবেন ফ্রিজ খালি, কিন্তু আক্রান্ত ব্যক্তি বলতে পারবে না।

কিছু কিছু বিশেষ কারণে ও মানুষ ঘুমের মধ্যে কথা বলে। যেমন:

• কিছু ওষুধের প্রভাব।
• মানসিক স্ট্রেস, বিষণ্নতা।
• জ্বর।
• মানসিক সমস্যা।
• মাদক গ্রহণের পর।
• স্লিপ অ্যাপনিয়া।

যা করবেন:
চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগে করুন। যদি ঘুমের মধ্যে ভয় পান বা চিৎকার করেন তবে পরর্বতী ধাপ কি হবে তিনি বলে দেবেন। প্রয়োজনে স্লিপ স্পেশালিস্টের সাহায্য নিতে পারেন। আশার কথা হলো সাধারণত ঘুমের মধ্যে কথা বলার চিকিৎসা দরকার হয় না।

ঘুমের মধ্যে প্রচুর কথা বললে যা করবেন:
প্রথমে স্ট্রেস কমান। পর্যাপ্ত ঘুমান। একটা ডায়েরি রাখুন। তাতে লিখুন কখন শুতে গেলেন, কখন উঠলেন। সেই সঙ্গে দিনে কত কাপ চা-কফি খান, সিগারেট খান, কতটুকু ব্যায়াম করেন, কি ওষুধ খান।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: