শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে নির্মাণ হতে যাচ্ছে স্মৃতিসৌধ,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডিও লেটার  » «   সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশের ১০ ধাপ অবনতি  » «   জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু  » «   আইডিয়া’র ২৫ বছর পূর্তি উৎসবে র‍্যালি, আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  » «   উন্নয়ন করতে গিয়ে জীবন ও জীবিকার যেন ক্ষতি না হয় : প্রধানমন্ত্রী  » «   আজ দিন রাত সমান, আকাশে থাকবে সুপারমুন  » «   সহকর্মীর হাতে খুন হলেন তিন ভারতীয় সেনা  » «   মসজিদে হামলাধারী ব্রেন্টন আইএস থেকে ভিন্ন কিছু নয়: এরদোগান  » «   সিলেটে মেশিনে আদায় হবে যানবাহনের মামলার জরিমানা  » «   গ্যাসের দাম ১৩২% বৃদ্ধির প্রস্তাব হাস্যকর  » «   মেয়রের আশ্বাসে ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত  » «   দরিদ্র বলে এদেশে কিছু থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী  » «   এক সপ্তাহের মধ্যে আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ  » «   গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশি ওমরের মুখে মসজিদে হামলার লোমহর্ষক বর্ননা…  » «   আজ প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী,আ. লীগের শ্রদ্ধা  » «  

গ্রিল খুলে ঘুমন্ত মা-বাবার বিছানা থেকে শিশুকে চুরি!



নিউজ ডেস্ক:: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে জানালার গ্রিল খুলে ঘুমন্ত মা-বাবার কোলের মধ্য থেকে আড়াই মাস বয়সী শিশুকে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে বিশারীঘাটা গ্রামে লোমহর্ষক এ ঘটনাটি ঘটে।

দুর্বৃত্তরা দলিল লেখক সোহাগ হাওলাদারের আড়াই মাস বয়সী ছেলে আব্দুল্লাহকে নিয়ে গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে থানা পুলিশ।এছাড়া এ ঘটনার পর এলাকাবাসী ওই বাড়িতে ভিড় করেছে।এদিকে শিশুটির মুক্তির জন্য মোবাইল ফোনে দশ লাখ টাকা ‘মুক্তিপণ’ দাবি করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোহাগ বলেন, রাত ৩টার দিকে অসুস্থ ছেলেকে ওষুধ খাওয়াই। এর পরে আমাদের অপর সন্তান সুমাইয়া ও আব্দুল্লাহকে নিয়ে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। রাত সাড়ে ৪টায় জেগে দেখি বিছানায় আমার সন্তান আব্দুল্লাহ নেই। আমার মোবাইল ফোনটিও নেই। নেমে দেখি জানালার গ্রীল খোলা, দরজা খোলা। ঘরের মধ্যে লোক টের পেয়েছি, ওঠার চেষ্টা করেছি, কিন্তু পারিনি। ঘরের অন্যান্য কক্ষের সকল দরজা বাহির থেকে আটকিয়ে রেখেছিল দুর্বৃত্তরা।

সোহাগের স্ত্রী রেশমা বেগম বলেন, ওষুধ খাওয়ানোর পরে আব্দুল্লাহকে বুকের দুধ খাওয়াতে খাওয়াতে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। সে আমার কোলের মধ্যেই ছিল। কিভাবে নিয়ে গেছে টের পাইনি।

এ বিষয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ওসি কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। কারা, কি কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা এই মুহূর্তে স্পষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: