মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রাজমিস্ত্রি সেজে খুনি ধরলেন এসআই লালবুর রহমান!  » «   আগামী ৫ জুন পবিত্র ঈদুল ফিতর!  » «   বাংলাদেশের সঙ্গে ঝামেলা করতে চাচ্ছে পাকিস্তান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   লুটপাটের উন্নয়নের কথা শুনতে শুনতে জনগণ অতিষ্ঠ: রিজভী  » «   শ্লীলতাহানির বিচার না পেয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা, ওসি প্রত্যাহার  » «   ৩৪ পয়েন্টে ওয়াসার পানি পরীক্ষার নির্দেশ  » «   যেভাবে গণনা হবে ভারতে লোকসভা নির্বাচনের ভোট  » «   ঋণখেলাপিদের গণসুবিধার নীতিমালায় স্থিতি অবস্থার আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট  » «   স্বামী- স্ত্রী পরিচয়ে পতিতাবৃত্তি, সাংবাদিক পরিচয়ে ব্লাকমেইল!  » «   পাকিস্তানের নাগরিকদের ভিসা বন্ধ করল বাংলাদেশ  » «   সৌদি আরবের মক্কা ও জেদ্দা নগরীতে হুতিদের মিসাইল হামলা  » «   সারাদেশের পাস্তুরিত দুধ পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট  » «   আত্মহত্যাচেষ্টার আগে শোভন-রাব্বানীর উদ্দেশে ফেসবুকে যা লিখলেন দিয়া  » «   এক সময়ের কোটিপতি এখন ভাঙারি দোকানের শ্রমিক!  » «   বগুড়া-৬ আসনে বিএনপির মনোনয়ন দৌঁড়ে এগিয়ে সিরাজ  » «  

গ্রিল খুলে ঘুমন্ত মা-বাবার বিছানা থেকে শিশুকে চুরি!



নিউজ ডেস্ক:: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে জানালার গ্রিল খুলে ঘুমন্ত মা-বাবার কোলের মধ্য থেকে আড়াই মাস বয়সী শিশুকে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে বিশারীঘাটা গ্রামে লোমহর্ষক এ ঘটনাটি ঘটে।

দুর্বৃত্তরা দলিল লেখক সোহাগ হাওলাদারের আড়াই মাস বয়সী ছেলে আব্দুল্লাহকে নিয়ে গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে থানা পুলিশ।এছাড়া এ ঘটনার পর এলাকাবাসী ওই বাড়িতে ভিড় করেছে।এদিকে শিশুটির মুক্তির জন্য মোবাইল ফোনে দশ লাখ টাকা ‘মুক্তিপণ’ দাবি করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোহাগ বলেন, রাত ৩টার দিকে অসুস্থ ছেলেকে ওষুধ খাওয়াই। এর পরে আমাদের অপর সন্তান সুমাইয়া ও আব্দুল্লাহকে নিয়ে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। রাত সাড়ে ৪টায় জেগে দেখি বিছানায় আমার সন্তান আব্দুল্লাহ নেই। আমার মোবাইল ফোনটিও নেই। নেমে দেখি জানালার গ্রীল খোলা, দরজা খোলা। ঘরের মধ্যে লোক টের পেয়েছি, ওঠার চেষ্টা করেছি, কিন্তু পারিনি। ঘরের অন্যান্য কক্ষের সকল দরজা বাহির থেকে আটকিয়ে রেখেছিল দুর্বৃত্তরা।

সোহাগের স্ত্রী রেশমা বেগম বলেন, ওষুধ খাওয়ানোর পরে আব্দুল্লাহকে বুকের দুধ খাওয়াতে খাওয়াতে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। সে আমার কোলের মধ্যেই ছিল। কিভাবে নিয়ে গেছে টের পাইনি।

এ বিষয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ওসি কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। কারা, কি কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা এই মুহূর্তে স্পষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: