সোমবার, ১৮ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের কুকীর্তি ফাঁস!  » «   মায়ের পছন্দ ব্রাজিল, সমর্থক জয়ও  » «   পুলিশ কমিশনার‘ঈদগাহে ছাতা ও জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু নয়’  » «   ‘আমিও প্রেগনেন্ট হয়েছি, অনেকবার অ্যাবরশনও করিয়েছি’  » «   গুগল পেজ ইরর দেখায় কেন?  » «   রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সিইসি কে কোথায় ঈদ করছেন  » «   ইসি সচিব : তিন সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু ও ধলাই  » «   বিশ্বকাপের একদিন আগে বরখাস্ত স্পেন কোচ!  » «   ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে ৭ কি.মি. যানজট  » «   শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে আলিয়ার সোজা কথা!  » «   যে কারণে ইউনাইটেড হাসপাতালে যেতে চান খালেদা  » «   খালেদা চিকিৎসা চান নাকি রাজনীতি করছেন : সেতুমন্ত্রী  » «   যানজটের কথা শুনিনি, কেউ অভিযোগও করেননি  » «   ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান ‘বকশিসের নামে নীরব চাঁদাবাজি নেই’  » «  

গাজীপুরে ওবায়দুল কাদের‘খালেদার স্ট্রোক হয়নি’



নিউজ ডেস্ক::কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ‘মাইল্ড স্ট্রোক’ করেছিলেন। যার ফলে গত ৫ জুন তিনি (খালেদা) হঠাৎ করে পড়ে গিয়েছিলেন বলে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের দাবি নাকচ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তার ধারণা, বিএনপি নেত্রীর রক্তে চিনি (সুগার) কমে গিয়েছিল।

শনিবার (৯ জুন) বিকালে খালেদাকে দেখতে কারাগারে যান তার ব্যক্তিগত চার চিকিৎসক। প্রায় দেড় ঘণ্টা অবস্থান শেষে বেরিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক এফ এম সিদ্দিকী সাংবাদিকদের বলেন, ‘কারাগারে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও যথাযথ চিকিৎসা সেবার অভাবে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন। গত ৫ জুন তিনি (খালেদা) হঠাৎ করে পড়ে গিয়েছিলেন। এরপর ৫-৭ মিনিট তিনি কথাও বলতে পারছিলেন না। তার একটি ‘মাইল্ড স্ট্রোক’ হয়েছে বলে আমাদের কাছে প্রতীয়মান হচ্ছে।’

দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি না করলে তার বড় ধরনের স্ট্রোক হতে পারে বলে আশঙ্কার কথা জানান তারা। এদিকে বিএনপি নেতারা তাদের নেত্রীকে বেসরকারি হাসপাতাল ইউনাইটেডে নিয়ে যাওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

তবে সরকারের পক্ষ থেকে গত ৭ এপ্রিলের মতোই বিএনপি প্রধানকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নিয়ে এসে পরীক্ষা-নিরীক্ষার কথা জানানো হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সেখানকার চিকিৎসকরা যে পরামর্শ দেবেন, সে অনুযায়ীই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রবিবার (১০ জুন) গাজীপুরের চন্দ্রায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পরিস্থিতি পরিদর্শনে এসে সংবাদ কর্মীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন কাদের।

সরকারের এই মন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মাইল্ড স্ট্রোকের বিষয় নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইজি প্রিজনের সঙ্গে কথা হয়েছে। মাইল্ড স্ট্রোকের বিষয়টি তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা বলেছেন কিন্তু আইজি প্রিজন বলছেন, জেলের হাসপাতালের যে চিকিৎসক রয়েছেন, তিনি জানিয়েছেন এটা সুগার ফলের বিষয়। এটি মাইল্ড স্ট্রোকের বিষয় নয়।’

‘তারপরও বেগম জিয়াকে অনুরোধ করা হয়েছে, বাইরে নিয়ে চিকিৎসা করানোর জন্য। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।’

খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় সরকার সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে জানিয়ে সড়ক মন্ত্রী বলেন, ‘তিনি দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে জেলে আছেন তবে অমানবিক আচরণ করা হবে এমনটি নয়। তিনি একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী, তার চিকিৎসায় গাফলতির বিষয় আমরা কেউ সাপোর্ট করি না।’

সড়ক পরিস্থিতি ও ঈদযাত্রা নিয়ে কাদের বলেন, ‘যানজট সহনীয় মাত্রা এবং জনগণের সুবিধার্থে ঈদ উপলক্ষ্যে আগামী ১২ জুন থেকে চন্দ্রা এলেঙ্গা ফোর লেনটি পুরোপুরি চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে।’

‘এছাড়া এ মহাসড়কের ২৩টি সেতুর ওপর দিয়েও গাড়ি চলবে। এ মুহূর্তে এটির উদ্বোধন আমরা করতে পারছি না। তবে ঈদের পরে প্রধানমন্ত্রী এটি উদ্বোধন করবেন।’

‘সড়কের জন্য যানজট হবে না’- আবারও জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘ফিটনেসবিহীন গাড়ি এবং রং সাইড ব্যবহার করার কারণে সড়ক বন্ধ হতে পারে।’

ঢাকা বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, ডিআইজি আতিকুর রহমান, গাজীপুর সড়ক ও জনপথেথর প্রকৌশলী ডিকেএন নাহিন রেজা, গাজীপুর পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ, গাজীপুর হাইওয়ে পুলিশ সুপার শফিকুর ইসলামসহ সড়ক ও জনপথের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: