বুধবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পদ্মা নদীর ওপারেই বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হবে  » «   স্যাটেলাইটে ধরা পড়ল সুন্দরবনের ৪০ একর বন উধাও!  » «   রহস্য খোলাসা করলেন সৌদি থেকে পালিয়ে আসা সেই তরুণী  » «   সংরক্ষিত আসনে মনোনয়ন ফরম কিনলেন তৃতীয় লিঙ্গের ৮ জন  » «   শাস্তির বদলে পদোন্নতি! লেক দূষণ রোধের ৫০ কোটি টাকা নয়ছয়  » «   ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান  » «   প্রধানমন্ত্রীর সই জাল করে টাকা আত্মসাৎ!  » «   আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন শুরু ৮ ফেব্রুয়ারি  » «   এমপিদের শপথ গ্রহণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিটের শুনানি বুধবার  » «   গায়েবি মামলা বলতে কিছু নেই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   মেধাবীরা আত্মহত্যা করে আর মেধাহীনরা জাতির ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করে  » «   ৫০ আসনের ৪৭টিতে অনিয়ম: টিআইবি  » «   টিলাগড় ইকোপার্ক: বাঘ-সিংহ নিয়ে কেবলই আশ্বাস!  » «   কোটা সংস্কার আন্দোলনের চার মামলায় প্রতিবেদন ১৪ ফেব্রুয়ারি  » «   প্রশ্নফাঁস ও কোচিং বাণিজ্য বন্ধসহ ৫ নির্দেশনা দিলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «  

গাজায় ইসরাইলি সেনাদের কমান্ডো হামলায় ৭ ফিলিস্তিনি নিহত



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ইসরাইলি সেনারা অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় প্রবেশ করে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের এক শীর্ষস্থানীয় কমান্ডারসহ সাত ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে।

ইহুদিবাদী দেশটির সেনাদের দাবি, তাদের টার্গেট ছিল-হামাসের সামরিক শাখা ইজ্জাদ্দিন আল-কাস্সাম ব্রিগেডের সিনিয়র কমান্ডার নূর বারাকা। এ সময় বাধা পেয়ে অন্য ফিলিস্তিনিদের হত্যা করে তারা। এ সময় হামাসের পাল্টা গুলিতে এক ইসরাইলি সেনাও প্রাণ হারায়। খবর আলজাজিরার।

এক বিবৃতিতে হামাস জানায়, দক্ষিণ গাজার খান ইউনিস শহরের কাছে ইসরাইলি বিশেষ বাহিনীর একটি দল রোববার ছদ্মবেশে একটি বেসামরিক গাড়িতে করে গাজা উপত্যকায় অনুপ্রবেশ করে।

এ সময় তারা চলন্ত গাড়ি থেকে গুলি চালিয়ে হামাসের সামরিক শাখা ইজ্জাদ্দিন আল-কাস্সাম ব্রিগেডের সিনিয়র কমান্ডার নূর বারাকাকে হত্যা করে। ইসরাইল সীমান্ত থেকে গাজা উপত্যকার তিন কিলোমিটার ভেতরে ওই হামলা হয় বলে হামাস জানিয়েছে।

কমান্ডার নিহত হওয়ার পর হামাস যোদ্ধারা ঘাতক ইসরাইলি সেনা বহনকারী গাড়িটির ওপর হামলা চালালে দুপক্ষের মধ্যে গুলিবিনিময় শুরু হয়। এ সময় আরও ৬ ফিলিস্তিনিসহ এক ইসরাইলি সেনাও নিহত হয়।

এ সময় আকাশে উড়ে আসে একটি ইহুদিবাদী জঙ্গিবিমান। ইসরাইলি বিশেষ সেনা বহনকারী গাড়িটিকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করার জন্য ওই বিমান থেকে অন্তত ৪০টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়।

ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে নিজের অবৈধ উপস্থিতি বজায় রাখার জন্য দীর্ঘদিন ধরে সংগ্রামী ফিলিস্তিনিদের এভাবে হত্যা করে আসছে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী।

গত ৩০ মার্চ থেকে নিজেদের ভূমি ফিরে পাওয়ার আন্দোলন নতুন করে শুরু করার পর থেকে এ পর্যন্ত দুই শতাধিক নারী ও শিশুসহ স্বাধীনতাকামী দুই শতাধিক ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে দখলদার ইহুদিবাদীরা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: