বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «   ফের গ্রেপ্তার নাজিব রাজাক; দায়ের হবে ২১ মামলা  » «   প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ আবেদনেই প্রতিষ্ঠানের ৪০ কোটিরও বেশি আয় !  » «   ইউএনওদের জন্য উচ্চমূল্যে ১০০ জিপ গাড়ি, আপত্তি অর্থ মন্ত্রণালয়ের  » «   ডিজিটাল হলো জাতীয় পরিচয়পত্রের সেবা ব্যবস্থাপনা  » «   লন্ডনে মুসলিমদের ওপর গাড়ি হামলা, আহত ৩  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের ৫% সুদে গৃহঋণের আবেদন অক্টোবরে  » «   ভারতে তিন তালাককে শাস্তিযোগ্য অপরাধ ঘোষণা  » «   স্কুলছাত্রীকে পিটিয়ে অজ্ঞান করলেন শিক্ষক  » «   বোমা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, আর ইয়েমেনে সেই বোমা ফেলছে সৌদি  » «   রাখঢাক রাখছেন না পর্নো তারকা ডানিয়েল স্টর্মি  » «   কাবা শরীফের ভেতরে প্রবেশের সুযোগ পেলেন ইমরান  » «   মিয়ানমারে নিলামে উঠছে সুচির ভাস্কর্য  » «   এক দিনেই মিলবে পাসপোর্ট  » «   ওসমানী বিমানবন্দরে বিমানে তল্লাশি : ৪০টি স্বর্ণের বার উদ্ধার, চোরাচালানী আটক  » «  

গবেষকদের দাবিস্তনের আকারের সাথে ক্যানসারের সম্পর্ক!



লাইফস্টাইল ডেস্ক::নারীদের গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গের অংশ হচ্ছে স্তন। অনেক সময় স্তন ক্যানসারে নারীদের মৃত্যু পর্যন্ত হয়।

মানসিক চিকিৎসকদের মতে, স্তনের আকৃতি এক প্রকার মানসিক সমস্যার জন্ম দেয় নারীদের। এ কারণে রোগ থেকে অবসাদ অনেক ক্ষেত্রেই বক্ষ একটা ‘বিষয়’ হয়ে দাঁড়ায়। এ বিষয়ে সমীক্ষকরা, এর সঙ্গে ক্যান্সারেরও সম্পর্ক খুঁজে পেয়েছেন।

সম্প্রতি অ্যাংলিয়া রাসকিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক বীরেন স্বামী ও ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের গবেষক অ্যাড্রিয়ান ফার্নহ্যাম দু’জনে একটি সমীক্ষা চালান, তাদের বক্তব্য অনুযায়ী, ‌যেসব নারীদের স্তন ‘আকারে ছোট’, তাদের মধ্যে নিজেদের স্তন পরীক্ষা করার ক্ষেত্রে অনীহা প্রবল। ফলে স্তনে কোনো পরিবর্তন দেখা দিলেও, তারা চিকিৎসকের কাছে ‌যেতেও অনীহা প্রকাশ করেন।

গবেষক বীরেন স্বামী ও অ্যাড্রিয়ান ফার্নহ্যাম সম্প্রতি প্রায় ৪শত ব্রিটিশ নারীর উপর সমীক্ষা চালিয়েছেন। এই নারীদের মধ্যে অধিকাংশ নারীই তাদের ‘স্তনের আকার’ নিয়ে অসন্তুষ্ট। সমীক্ষা চালানো নারীদের ৩১ শতাংশ ‘ছোট স্তন’ চান। আবার ৪৪ শতাংশ নারী চান ‘বড় স্তন’।

এদিকে, ৩৩ শতাংশ নারীর দাবি, তারা নিয়মিত তাদের ‘স্তন পরীক্ষা’ করায় না। তাদের অধিকাংশই ‘আকারে ছোট স্তনে’র অধিকারী নারী।

গবেষকদের দাবি, কোনো নারীর নিজের স্তন সম্পর্কে স্পষ্ট ‘ধারণা’ থাকলে, সেখানে কোনো প্রকার পরিবর্তন ঘটলে সেটা তিনি সহজেই তা বুঝতে পারেন।

এ ব্যাপারে গবেষক বীরেন স্বামীর দাবি, নারীদের সাথে কথা বলে দেখা গেছে, স্তনের আকার নিয়ে কারো কোনো সমস্যা থাকলে তিনি নিজের স্তন পরীক্ষা করান সংখ্যায় খুবই কম। এমন কী কোনো পরিবর্তন হলেও চিকিৎসকের কাছে তারা অনেক দেরিতে যান।

এ কারণে ক্যানসারের মতো রোগ ধরা পড়তে অনেক টা সময় পার হয়ে যায়। ফলে বহু ক্ষেত্রেই প্রাণঘাতী হয়ে ওঠে ব্রেস্ট ক্যানসার।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: