বুধবার, ২২ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
খালেদা জিয়ার সুবিধার্থে কেরানীগঞ্জে আদালত স্থাপনের সিদ্ধান্ত: তথ্যমন্ত্রী  » «   বুথফেরত জরিপের ফলেই ‘বিজয়োৎসব’ শুরু বিজেপির  » «   হুতি বিদ্রোহীদের হামলা, সৌদির পাশে থাকবে পাকিস্তান  » «   ধানক্ষেতে আগুনের ঘটনা তদন্তে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ  » «   মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ছে  » «   বালিশ দুর্নীতি: নির্বাহী প্রকৌশলী প্রত্যাহার  » «   এফআর টাওয়ার নির্মাণে ত্রুটি, তদন্ত প্রতিবেদনে দোষী ৬৭ জন  » «   ক্ষতিপূরণ দিতে গ্রিনলাইনকে আদালতের আল্টিমেটাম  » «   প্রখ্যাত তিন ইসলামি স্কলারের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করছে সৌদি  » «   মৌলভীবাজারে কে এই ‘পীর’ আজাদ?  » «   ৮০ বছরের মধ্যে সাগরে ডুবে যাবে বাংলাদেশ!  » «   অনলাইনে ট্রেনের টিকিট: বিক্রি শুরুর আগেই টিকিট শেষ!  » «   আজ সিলেটের যে নয়টি এলাকায় গ্যাস সংযোগ বন্ধ থাকবে  » «   অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার বিক্রির দায়ে ইষ্টিকুটুম-মধুবনকে জরিমানা  » «   বুধবারীবাজার ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি রফিক উদ্দিনের জানাযায় মানুষের ঢল  » «  

খালেদা জিয়া আতঙ্ক ছড়িয়ে দেশে সন্ত্রাসকে উস্কে দিচ্ছে : সুরঞ্জিত



13. senনিউজ ডেস্ক::
আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত বলেছেন, রাজনীতিকে কিভাবে অস্থিশীল করা যায় সে প্রয়াস অব্যাহত রেখেছে বিএনপি। আদালতে গিয়ে খালেদা জিয়া আতঙ্ক ছড়িয়ে দেশে সন্ত্রাস, সংঘাত ও সহিংসতার রাজনীতিকে উস্কে দিচ্ছে। সংঘাত ও সহিংসতার রাজনীতি পরিহার করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ফিরে আসেন। নয়তো এর পরিণতি হবে ভয়াবহ। সংঘাতের রাজনীতি বিএনপি উস্কে দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
শুক্রবার দুপুরে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তন, কাকরাইলে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। চলমান রাজনীতি বিষয়ে আলোচনা সভাটির আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু একাডেমি।

তিনি বলেন, আদালতে গিয়ে বিচারের মুখোমুখি হয়ে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করুন। আমরা আপনাকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করবো। আর যদি প্রমাণ হয় আপনি দোষী সেই ব্যবস্থা আদালতই নিবে। আদালতে গিয়ে সহিংসতা চালাবেন এবং আদালতকে অবজ্ঞা করবেন তা গণতান্ত্রিক নেতা হিসাবে কাম্য নয়।
৫ জানুয়ারি আ. লীগের সমাবেশ পূর্বনিধারিত উল্লেখ করে সাবেক এ মন্ত্রী বলেন, এ তারিখে গণতন্ত্রের বিজয় দিবস পালন করবো আমরা। এর থেকে আ. লীগের কোন সম্ভবনা নেই। আপনারা(বিএনপি) অন্য কোনো দিন সমাবেশ করুন। আর প্রশাসনের কাছে আবেদন করুন এতে আমাদের কিছু বলার নেই।
আওয়ামী লীগের এ প্রবীণ নেতা বলেন, গাজীপুরের সভা একেবারে প্রশাসনিক বিষয়। আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে প্রশাসন কি ব্যবস্থা নিবে এটা তাদের এখতিয়ার। আর একদিন আগে পরে সভা করলে কিছু যায় আসে না।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, সহ সম্পাদক জাকির আহমেদ, সাম্যবাদী দলের নেতা হারুন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাই কানু প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: