মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বিদেশি বিজ্ঞানী-গবেষকদের ফ্রি ভিসা দেবে সৌদি আরব  » «   আগুনে পুড়ে প্রতিবন্ধি যুবক নিহত  » «   দুই বাসের সংঘর্ষে প্রাণ গেল ২ জনের  » «   ঝিনাইদহে পান চাষীকে হত্যা, মুলহোতাসহ গ্রেফতার ৪  » «   বড়লেখায় ভুয়া চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আইনী নোটিশ  » «   খালেদা জিয়ার রায় নিয়ে যা বললেন কাদের সিদ্দিকী!  » «   প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে ৪ শিক্ষকসহ গ্রেফতার ৫  » «   এক ম্যাচে ১০ লাল কার্ড!  » «   সিরিয়ায় বিমান হামলায় নিহত ৭৭  » «   এক আসামীকে চারবার ফাঁসির আদেশ!  » «   চুরির অভিযোগে শিশুকে রাতভর নির্যাতন  » «   টিক মারা বন্ধ করে দেব, প্রশ্ন ফাঁস প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী  » «   একুশে পদক প্রদান করছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ‘ইন্ডাস্ট্রিতে আসার পর কণ্ঠস্বর নিয়ে অনেক সমালোচনার মুখে পড়ি’  » «   ধর্ষণের সময় ছবি তুলে ‘ব্ল্যাকমেল’  » «  

‘খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর ষড়যন্ত্র করছে আ’লীগ’



নিউজ ডেস্ক::বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার লন্ডনে চিকিৎসা নিয়ে আওয়ামী নেতাদের ষড়যন্ত্র তত্ত্ব প্রচার করাতে সরকার কোন অশুভ পরিকল্পনা আঁটছে কিনা তা নিয়ে জনমনে ব্যাপক সন্দেহের সৃষ্টি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, আওয়ামী নেতারা যখন বিরোধী নেতাদের বিরুদ্ধে উদ্ভট অভিযোগ করেন তখন বুঝতে হবে সেটি সুদূরপ্রসারী চক্রান্তেরই অংশ। উদ্দেশ্যপ্রণোদিত কোন গোপন ফন্দি আঁটার বহিঃপ্রকাশ।

শুক্রবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

“বাংলাদেশের মানুষ উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে” প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলছেন “বাংলাদেশের মানুষ উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে” কিন্তু বাস্তবে বাংলাদেশের মানুষ ভোটারবিহীন সরকারের উন্নয়নের গালভরা বুলি’র বহিঃপ্রকাশ এখন চারিদিকে দেখা যাচ্ছে। সুফল তো নয়, কুফলের দুর্ভোগে মানুষের নাকাল অবস্থা।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীসহ সারাদেশের রাস্তাঘাট-সড়ক মহাসড়ক-অলিগলি এখন লন্ডভন্ড। এক ঘন্টার বৃষ্টিতেই রাস্তাঘাটের হদিস পাওয়া যায় না। কার, জীপ, ট্রাক, বাস, মিনিবাস, সিএনজি, রিকশা রাস্তার ওপর দিয়ে চলে না, নৌযানের মতো পানিতে ভাসে।

রিজভী বলেন, মানুষরা প্রশ্ন করছেন-ইডেন কলেজ, শান্তিনগর, পল্টন, বিজয় নগর, মালিবাগ এই এলাকাগুলো কোন নদীর তীরে অবস্থিত। সুতরাং এ কথাগুলো রসিকতা হলেও প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের প্রতি মানুষের ধারণা এরকমভাবেই ফুটে উঠেছে। কেবল রাজধানীর মানুষই দুর্ভোগে নেই, সারাদেশের গ্রামীণ অবকাঠামোই এখন তছনছ হয়ে গেছে।

তিনি আরো বলেন, মহাসড়কগুলোর খানাখন্দ আর বেহাল দশায় প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনায় মানুষের প্রাণ যাচ্ছে। মানুষ যেদিকেই তাকায় সেদিকেই হতাশা। কর্মসংস্থান নেই, বেকারের সংখ্যা তীব্র মাত্রায় বৃদ্ধি পাচ্ছে। রেমিটেন্স ব্যাপকভাবে কমে গেছে। বিদেশে কর্মরত হাজার হাজার প্রবাসীকে দেশে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে। বিনিয়োগের পরিবেশ নেই। ফলে একের পর এক গার্মেন্টস শিল্প বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সুতরাং উন্নয়ন শুধু আওয়ামী নেতাদের কন্ঠে। বাস্তবে নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপির এই নেতা বলেন, ইউনূস সেন্টার আয়োজিত ‘সপ্তম আন্তর্জাতিক সামাজিক ব্যবসা দিবস ২০১৭’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের অনুমতি দেয়নি পুলিশ। ২৮-২৯, ২০১৭ তারিখের আয়োজিত ৭ম আন্তর্জাতিক সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। সম্মেলনে পাঁচশ বিদেশি অতিথিসহ ৩৬টি দেশের দুই হাজারের বেশি প্রতিনিধির এ সম্মেলনে অংশ নেওয়ার কথা ছিল।

বিশ্বের খ্যাতিমান ব্যক্তিদের অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেয়ার জন্য অনুষ্ঠানের সার্বিক প্রস্ততিও সম্পন্ন হয়েছিল বলে গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে। আমন্ত্রিত পাঁচশ বিদেশি অতিথির মধ্যে প্রায় দুইশ অতিথি এরইমধ্যে ঢাকায় উপস্থিতও হয়েছেন। সম্মেলনের বিষয়টি জানিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশ, বিমানবন্দর ইমিগ্রেশনসহ সাতটি দপ্তরে গত ২০ জুলাই চিঠি পাঠিয়েছিলেন বলেও ইউনূস সেন্টার কর্তপক্ষ জানিয়েছেন। আর্ন্তজাতিক সম্মেলনের অনুমতি না দেওয়ার সরকারের এ সিদ্ধান্ত দেশের জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে না। এ বাধা দেয়ায় ঘটনা ব্যক্তিগত আক্রোশের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। এমনিতে ৫ জানুয়ির ভোটারিবিহীন এক তরফা নির্বাচনের পর থেকে সরকারি দল ও তাদের মিত্ররা ছাড়া প্রকাশ্যে কারও সভা-সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয় না। ঘরোয়া সভায়ও হানা দেয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তারপরে এ ধরণের আর্ন্তজাতিক সম্মেলনে বাধা দেওয়া স্বৈরতন্ত্রেরই হিংসরুপ। এরফলে আর্ন্তজাতিক বিশ্বে বাংলাদেশ সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা আরও গভীর হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: