রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

খালেদা জিয়াকে নিয়ে সংসদে শিল্পমন্ত্রীর অশ্লীল বক্তব্য



নিউজ ডেস্ক::শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বিএনপির চেয়ারপার্সন নিয়ে জাতীয় সংসদে অসংসদীয় ও অশ্লীল শব্দ ব্যবহার করেছেন। খালেদা জিয়া পাকিস্তানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ উল্লেখ করে তাকে উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী বলেন, ‘খায় দায় ভাতারের, গান গায় নাংগের। খালেদা জিয়া বসবাস করে বাংলাদেশে, খায় দায় বাংলাদেশ, গান গায় পাকিস্তানের।’

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে একথা বলেন তিনি। এর আগে সকাল ১১ টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়।

আমু বলেন, এমনিভাবে তারা পাকিস্তানের প্রেমে পাকিস্তানের দালালদের নিয়ে সরকার গঠন করে আজকে তারা বাংলার অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে চায়। যেমনি পাকিস্তানীরা বুঝতে পারছিল বঙ্গববন্ধুকে হত্যা না করলে স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে আঘাত করা যাবে না, ঠিক তেমনি তারা বুঝতে পেরেছিল শেখ হাসিনাকে হত্যা না করলে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করা যাবে না। তাই বার বার তার প্রাণনাশের চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু মহান রাব্বুল আলামিন শেখ হাসিনাকে বাঁচিয়ে রেখেছেন।

এর আগে অর্থমন্ত্রীর পক্ষ নিয়ে তিনি বলেন, অর্থমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে অনেকে বক্তব্য দিয়েছেন। এটা অনভিপ্রেত। বাজেট পেশ করা হয়েছে। বাজেটের ভেতর ভালো-খারাপ থাকতে পারে। সেটা নিয়ে আলোচনার সুযোগ আছে। এসবের পরিপ্রেক্ষিতে একটা সিদ্ধান্ত আসবে। কিন্তু এ জন্য অপেক্ষা না করে যারা সমালোচনার নামে কটাক্ষ-কটূক্তিপূর্ণ মন্তব্য করছেন, তা দুঃখজনক। তিনি বলেন, ভ্যাট নিয়ে অনেক কথাবার্তা হচ্ছে। এই সংসদে ২০১২ সালে সর্বসম্মতিক্রমে যখন পাস হয়, তখন কেউ এটা নিয়ে কোনো আপত্তি করেনি।

আমির হোসেন আমু বাজেটের বিভিন্ন ইতিবাচক দিক তুলে ধরে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির উদ্দেশে বলেন, ‘এত দিন তারা কিছু নিয়ে কথা বলেননি। তারা শুধু কটূক্তি-সমালোচনা করেছে। স্বৈরশাসনের ফলে যাদের সৃষ্টি করা হয়েছে, তাদের চিন্তা-চেতনা সে রকমই থেকে যায়।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: