সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে বিএনপি নেতাকর্মীদের মারধর ও ধরপাকড়ের অভিযোগ  » «   আটকে রেখে তিন সাংবাদিককে পেটালো বুয়েট ছাত্রলীগ  » «   সিরিয়ায় মসজিদ ধ্বংস করল মার্কিন জোট  » «   বাবার স্বপ্ন পূরণে বড় চাকরি ছেড়ে আপনাদের সেবায় এসেছি: রেজা কিবরিয়া  » «     » «   নির্বাচনে ‘সংঘাত’ একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না: সিইসি  » «   জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ২৫ সদস্যের সমন্বয়ক কমিটি  » «   আফগানিস্তানে মার্কিন বিমান হামলায় ১২ শিশুসহ নিহত ২০  » «   মহান বিজয় দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা  » «   চমক থাকছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে  » «   দুই-তিন দিনের মধ্যে ইসিতে যাবে বিএনপি  » «   কাদের সিদ্দিকী রাজাকার, বদমাইশ : মির্জা আজম  » «   নির্বাচনের ৭ দিন আগে ব্যালট পৌঁছে যাবে: ইসি সচিব  » «   রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে চান ড. কামাল  » «   যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড কানাডায় বোমা হামলার হুমকি  » «  

খালেদার শহীদ মিনারে শ্রদ্ধার বিষয়ে যা বললেন আ’লীগ নেতারা



নিউজ ডেস্ক::আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে প্রতি বছর দেশের অন্যতম রাজনৈতিক দল বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করলেও এবার তিনি দুনীতি মামলার আসামী হিসেবে কারাগারে আছেন। তাই এবছর তিনি ২১শে ফেব্রুয়ারি শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারছেন না। আসামী খালেদা জিয়া শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানো নিয়ে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ নেতারা বিভি২৪লাইভের কাছে বিভিন্ন মন্তব্য প্রকাশ করেছেন।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য নূহ-উল আলম লেনিন বলেন, রাজনৈতিক ব্যাক্তি হিসেবে তিনি অপরাধ করছেন। অপরাধের কোনো রাজনীতি নাই। দেশেল প্রচলিত আইন সবার ক্ষেত্রে যা হয় তিনি আইনের ঊর্ধ্বে না। তার শাস্তি হয়েছে।তিনি এরই মধ্যে জামিন পেলে ফুল দিবেন। জামিন না পেলে দিবেন না। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের আগে বঙ্গবন্ধুসহ বহু নেতা বছরের পর বছর জেল খেটেছেন। তখন তো শহীদ মিনারে যেতে পারেন নাই। উনি না গেলে বা অন্য কোনো ব্যাক্তি না গেলে শহীদদের মর্যাদা ক্ষুন্ন হয় না। তখনই শহীদদের মর্যাদা ক্ষুন্ন হয়, যখন দেশের প্রধানমন্ত্রী কিংবা রাষ্ট্রপতি যারা থাকেন না। ফুল না দেয়। অন্য কেউ গেল, কী গেল না, এতে কী আছে যায়।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আমি জানি না জেল খানার ভিতরে শহীদ মিনারে ফুল দেওয়ার ব্যবস্থা আছে কী না? যদি থাকে, জেল কারা কর্তৃপক্ষ সেটা দেখতে পারে। অপরাধী আসামীর জন্য কী এই ধরণের সুযোগ আছে? এই মুহুর্তে রাজনৈতিক ব্যাক্তি বিষয় না। তাকে এই ভাবে দেখলে, বাংলাদেশে যারা অপরাধী আছে। তারা সবাই রাজনীতি করার চেষ্টা করবে! রাজনীতি দুর্নীতি মুক্ত করতে হবে। তার প্রতি যদি সিমপ্যাথি দেখানো হয়।তাহলে সকল দুর্নীতিবাজই রাজনীতি মধ্যে ঢুকে যাবে। আমাদের তো সেখান থেকে উত্তরণ ঘটাতে হবে।

এ বিষয়ে চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বিডি২৪লাইভকে বলেন, ‘প্রতি বছর তো ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) ২০ তারিখ দিবাগত রাত ১২ টার পরই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যান কিন্তু এ বছর মিথ্যা মামলায় কারাগারে থাকার কারণে ২১ তারিখ সকালে প্রথম প্রহরে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে সিনিয়র নেতারা উপস্থিত থাকবেন’।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় ৫ বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং ২ কোটি ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড হওয়ার পর থেকে ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন বেগম খালেদা জিয়া।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: