শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে নির্মাণ হতে যাচ্ছে স্মৃতিসৌধ,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডিও লেটার  » «   সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশের ১০ ধাপ অবনতি  » «   জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু  » «   আইডিয়া’র ২৫ বছর পূর্তি উৎসবে র‍্যালি, আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  » «   উন্নয়ন করতে গিয়ে জীবন ও জীবিকার যেন ক্ষতি না হয় : প্রধানমন্ত্রী  » «   আজ দিন রাত সমান, আকাশে থাকবে সুপারমুন  » «   সহকর্মীর হাতে খুন হলেন তিন ভারতীয় সেনা  » «   মসজিদে হামলাধারী ব্রেন্টন আইএস থেকে ভিন্ন কিছু নয়: এরদোগান  » «   সিলেটে মেশিনে আদায় হবে যানবাহনের মামলার জরিমানা  » «   গ্যাসের দাম ১৩২% বৃদ্ধির প্রস্তাব হাস্যকর  » «   মেয়রের আশ্বাসে ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত  » «   দরিদ্র বলে এদেশে কিছু থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী  » «   এক সপ্তাহের মধ্যে আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ  » «   গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশি ওমরের মুখে মসজিদে হামলার লোমহর্ষক বর্ননা…  » «   আজ প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী,আ. লীগের শ্রদ্ধা  » «  

খালেদার জামিন, যা বললেন আইনমন্ত্রী



নিউজ ডেস্ক::জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাগারে থাকা বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দিয়েছেন আদালত।

এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, জামিনের অর্ডার জেলখানায় যাওয়ার পরই মুক্তি পাবেন খালেদা জিয়া। তবে আমি রায়ে কি ধরণের বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে সে বিষয়ে পরিস্কার না।

সোমবার (১২ মার্চ) সচিবালয়ের রায়ের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, এ জামিনের মাধ্যমে প্রমাণ হলো সরকার আদালতের উপর হস্তক্ষেপ করে না। একইসাথে পরের কর্মপন্থা দুর্নীতি দমন কমিশন ঠিক করবে বলেও জানান তিনি।

আইনমন্ত্রী বলেন, আদালত আদেশে কি উল্লেখ করেছেন তার উপর নির্ভর করবে খালেদা জিয়া কখন মুক্তি পাবেন। যদি শর্ট অর্ডারে মুক্তি পাওয়ার বিষয়ে রায়ে কোন নির্দেশনা থাকে তাহলে শর্ট অর্ডার জেলে পৌঁছালে উনি মুক্তি পাবেন।

আর কোন মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, এটা আমরা জানা নেই। তবে এবার আবারো প্রমাণিত হলো দেশের বিচার ব্যবস্থা স্বাধীন। জামিনের মাধ্যমে প্রমাণ হলো সরকার আদালতের উপর হস্তক্ষেপ করে না।
প্রসঙ্গত, আজ ১২ মার্চ দুপুরে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাগারে থাকা বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে করা শুনানি শেষে চার মাসের জামিন দিয়েছেন আদালত।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এছাড়া এই সময়ের মধ্যে খালাস চেয়ে বেগম জিয়ার আপিল শুনানির জন্য প্রস্তুত করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এসময় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, দুদকের পক্ষে খুরশিদ আলম খান এবং খালেদা জিয়ার পক্ষে জয়নুল আবেদীন শুনানি করেছেন।

একই বেঞ্চে রবিবার মামলাটি জামিন বিষয়ে আদেশের জন্য রাখা ছিল। কিন্তু মামলার নথি না পৌঁছানো ও আদালতের দেয়া ১৫ দিন সময় শেষ না হওয়ায় আদেশের জন্য সময় পিছিয়ে সোমবার দিন ধার্য করেন। মামলাটি আজ হাইকোর্টের কার্যতালিকার (কজলিস্ট) এক নম্বরে রাখা হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: