শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «   গজারী বনে যুবতীর অর্ধগলিত লাশ  » «   ‘খালেদা চেয়েছিলেন আমি কারাগারেই মরি’: এরশাদ  » «   রাজনীতিতে ভালবাসার কোনো স্থান নেই : কাদের  » «   ফতুল্লার ব্রাজিল বাড়িতে নিজ দেশের খেলা দেখবেন রাষ্ট্রদূত  » «   সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ দিতে উদ্যোগ নিচ্ছে গুগল  » «   জামিনের ৭ দিন পরে ফের ইয়াবাসহ আটক  » «   প্রিয়জনের রাগ ভাঙাবেন যেভাবে!  » «   নদী ভাঙনে বড়লেখার ৫ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ চরমে  » «   আইসিআরসি প্রেসিডেন্ট আসছেন ৩০ জুন  » «   মা হলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী!  » «   যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ২  » «  

খালেদাকে শ্রমিক লিগের আল্টিমেটাম



ligনিউজ ডেস্ক :: ২১ জানুয়ারির মধ্যে হরতাল-অবরোধ প্রত্যাহার করা না হলে আগামী ২২ জানুয়ারি খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয় ঘেরাও করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিকলিগ ।

রোববার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংগঠনের নেতারা এ দাবি জানান। পরিবহনে আগুন দিয়ে চালক-হেলপার হত্যায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে তাকে গ্রেফতার করারও দাবি জানানো হয়েছে।
সংগঠনের সভাপতি ওয়াহেদুজ্জামান ওয়াহিদ বলেন, আগামী তিন দিন তিন দিনের মধ্যে হরতাল-অবরোধ প্রত্যাহার, পরিবহনে আগুন দিয়ে চালক-হেলপার, সাধারণ মানুষ হত্যা বন্ধ করতে হবে।
অন্যথায় আগামী ২২ জানুয়ারি সকাল ১০টায় হাজার হাজার পরিবহন শ্রমিক নিয়ে আপনার রাজনৈতিক কার্যালয় ঘেরাও করা হবে বলে হুঁশিয়ার করেন তিনি।
সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে ওয়াহিদ বলেন, সারাদেশে প্রায় ২২৫টি পরিবহনে আগুন, ৫ শতাধিক পরিবহন ভাঙচুর ও বেশ কয়েকজন হেলপার-চালককে পেট্রোল বোমা মেরে হত্যা করা হয়েছে।
সর্বশেষ শনিবার মৎস্য ভবনের সামনে ১২ জন পুলিশকে পেট্রোল বোমায় দগ্ধ করেছে। খালেদার নির্দেশে জামায়াত-শিবির এসব করেছে। এসবের জন্য খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি।
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইনছুর আলী খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আজ ১১ দিন কর্মসূচি দিয়ে আপনি ভালো খাটে ঘুমান।
আপনারা সাবেক মন্ত্রী-এমপিরা তো রাস্তায় বের হন না। সাহস থাকলে হরতাল অবরোধ দিয়ে রাস্তায় বের হোন।
তিনি বলেন, হেলপার-চালক তো সাধারণ শ্রমিক। পেটের দায়ে তারা রাস্তায় বের হন। আপনি তাদের পেট্রোল বোমা দিয়ে হত্যা করেন।
হরতাল-অবরোধের নামে আপনার নৈরাজ্য বন্ধ না হলে আগামী ২২ জানুয়ারি সারাদেশের হাজার হাজার পরিবহন শ্রমিক নিয়ে আপনার কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ, সমাবেশ করে আপনাকে উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে।
মানববন্ধনে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুল হক সবুজ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের কার্যকরি সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সহ-সভাপতি সেরাজুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাত্তার মল্লিক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: