রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে ডাক্তারদের প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ, ফার্মেসিতেই চিকিৎসা  » «   ৯ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত  » «   এবার স্পেনও ছাড়ালো চীনকে, ২৪ ঘণ্টায় ৭৩৮ মৃত্যু  » «   সিলেট বিভাগে বৃহস্পতিবার থেকে গণপরিবহন বন্ধ  » «   করোনা মোকাবিলায় দেশে দেশে লকডাউন  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি, করোনা বদলে দিচ্ছে রাজনীতি  » «   খালেদার মুক্তির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাল যুক্তরাষ্ট্র  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তিতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক দেখছেন ড. কামাল  » «   করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে গ্রিসে লকডাউন  » «   বান্দরবানের ৩ উপজেলা লকডাউন  » «   ইতালিতে একদিনে ৭৪৩ জনের মৃত্যু  » «   ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮৬ মৃত্যু  » «   নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত ২০ হাজার ছাড়াল  » «   সাধারণ ছুটিতে চালু থাকবে ব্যাংক  » «   করোনাভাইরাস: উৎকণ্ঠিত সিলেট, উদ্বিগ্ন মানুষ  » «  

কোয়ারেন্টিনে না থেকে আড্ডা, ২০ হাজার টাকা জরিমানা



নেত্রকোনার কলমাকান্দা সদরের এক ব্যক্তি (৪২) গত বৃহস্পতিবার গ্রিস থেকে দেশে আসেন। এরপর তিনি নিজের শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণু নেই দাবি করে বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে না থেকে এলাকায় হাট-বাজারে মানুষের সঙ্গে মেলামেশা শুরু করেন।

খবর পেয়ে কলমাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সোহেল রানা গত রোববার সন্ধ্যায় পুলিশ নিয়ে ওই এলাকায় যান। এ সময় ওই ব্যক্তি স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে লোকজন নিয়ে বসে গল্প করছিলেন।

পরে ইউএনও ভ্রাম্যমাণ আদালত বসান। আদালতের কাছে ওই ব্যক্তি নিজের দোষ স্বীকার জানান, বিমানবন্দর থেকে তাঁকে ১৪ দিনের হোম (বাড়িতে) কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল। তিনি হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। কিন্তু জরুরি কাজ থাকায় বাইরে এসেছেন। এ সময় আদালত তাঁকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। একই সঙ্গে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পাশাপাশি যাঁরা ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছেন, সবার তালিকা করে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও থানা-পুলিশকে বিষয়টি বাস্তবায়নের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

কলমাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সোহেল রানা এ প্রতিবেদককে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: