রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «   ভাওতাবাজির জন্য সরকারকে গোল্ড মেডেল দেওয়া উচিৎ: ড. কামাল  » «   দিল্লির লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানের!  » «   সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল  » «  

কোটা আন্দোলনে হামলার ঘটনায় মার্কিন দূতাবাসের নিন্দা



নিউজ ডেস্ক::বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে কোটাপ্রথার বিরুদ্ধে বেশ কিছুদিন ধরেই ছাত্ররা বিক্ষোভ করছে। এ আন্দোলনের মুখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি চাকরিতে সবধরণের কোটা বাতিল করা হবে বলে সংসদে বিবৃতি দেন। কিন্তু এর বাস্তবায়ন নিয়ে অগ্রগতি না হবার কারণ দেখিয়ে কিছুদিন আগে দ্বিতীয় দফায় আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা।

এরই এক পর্যায়ে গত সপ্তাহে কোটা আন্দোলনকারীদের সমাবেশের ওপর দফায় দফায় আক্রমণ চালানো হয়। এজন্য আন্দোলনকারীরা সরকার-সমর্থক ছাত্রলীগকে দায়ী করলেও, ছাত্রলীগ এর পেছনে আন্দোলনকারীদের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বই কারণ ছিল বলে দাবি করে।

আর এরই জেরে বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে কোটার বিরুদ্ধে আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে তাদের ওপর আক্রমণের নিন্দা করেছে ঢাকাস্থ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস। প্রতিবেদনে এসব তথ্য তুলে ধরে বিবিসি বাংলা।

প্রতিবেদনে আরো তুলে ধরা হয়, ফেসবুকে দূতাবাসের পাতায় প্রকাশ করা এক বিবৃতিতে দূতাবাস বলেছে, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা – যারা বাংলাদেশের গর্বিত গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ নেতা – তাদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের ওপর আক্রমণ সেই সব মূলনীতির বিরোধী, যার ওপর আমাদের মতো দেশগুলো প্রতিষ্ঠিত।’

এতে আরো বলা হয়, ‘বাকস্বাধীনতা, জমায়েতের স্বাধীনতা এবং শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের অধিকারের মতো যে মৌলিক গণতান্ত্রিক অধিকারগুলো যারা প্রয়োগ করছে – মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সরকার তাদের সাথে সংহতি প্রকাশ করছে।’

এই বিবৃতির সাথে একটি ‘পিসফুলপ্রটেস্টবিডি’ নামে একটি হ্যাশট্যাগ সংযুক্ত করা হয়েছে – যাতে এ বিষয় নিয়ে আরো মন্তব্য বা পোস্ট রয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: