সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরের ‘বিরোধিতায়’ ১১ জেলায় বাস চালানো বন্ধ  » «   নগরীতে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে পিয়াজ, ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন  » «   বলিভিয়ার অশান্তির নেপথ্যে ‘সাদা সোনা’, যা পরবর্তী বিশ্বের আকাঙ্ক্ষিত বস্তু  » «   আবরার হত্যা: পলাতক চারজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি  » «   ‘অপকর্মে’ সংকুচিত দ. কোরিয়ার শ্রমবাজার  » «   ৩০০ টাকার পিয়াজ সরকারের দিনবদলের সনদ: ডাকসু ভিপি নুর  » «   অযোধ্যা রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করছে মুসলিমরা  » «   ভাঙছে শরিক দল সঙ্কটে ঐক্যফ্রন্ট  » «   হলি আর্টিসান হামলা: রায় ২৭ নভেম্বর  » «   চাকা ফেটেছে নভোএয়ারের, ভাগ্যগুণে বেঁচে গেলেন ৩৩ যাত্রী  » «   হাত-পা ছাড়াই মুখে ভর করে লিখে পিইসি দিচ্ছে লিতুন  » «   প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া বিএনপির চিঠিতে আবরার হত্যার বর্ণনা  » «   ১৫০ যাত্রী নিয়ে মাঝ আকাশে বিপাকে ভারতীয় বিমান, রক্ষা করল পাকিস্তান  » «   বিমান ছাড়াও ট্রেন, ট্রাক, বাসে করে আসছে পেঁয়াজ: সিলেটে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   চুক্তির তথ্য জানতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিল বিএনপি  » «  

কেমন হবে এবার কাশ্মিরীদের ঈদ?



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: উৎকণ্ঠা ও অনিশ্চয়তার মধ্যে ভারত-অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মিরে চলছে ঈদ প্রস্তুতি। ঈদ উপলক্ষে অঞ্চলটির কিছু জায়গায় ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হলেও এখনো অপ্রতুল মোবাইল, ল্যান্ডফোন ও ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক। বন্ধ রয়েছে শহরগুলোতে অধিকাংশ বিপণিবিতান। ব্যারিকেড দেওয়া আছে সড়কপথে। রোববার (১১ আগস্ট) ইন্ডিয়া টুডের খবরে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে ভারতীয় আর্মি এক বিবৃতিতে বলেছে, কাশ্মিরের পরিবেশ শান্তিপূর্ণ। অধিবাসীদের সাহায্য করা হচ্ছে যেন তারা ঈদ উদযাপন করতে পারে। দোকানপাট খোলা রয়েছে। স্থানীয়রা কার ও বাসে যাতায়াত করছেন। এটিএম বুথ, হাসপাতালসহ জরুরি সেবা সহায়তা সবার জন্য উন্মুক্ত রয়েছে। এছাড়া খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করা হয়েছে।

জম্মু ও কাশ্মিরের পুলিশ কর্মকর্তা দিলবাগ সিং জানান, মাত্র ৫টি শহরে আইনি বিধিনিষেধ বজায় রয়েছে। ধীরে ধীরে তাও তুলে নেয়া হবে।

ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজর অজিত দোভাল শনিবার ঈদ উপলক্ষে কাশ্মিরের কিছু পশুর হাট পরিদর্শন করেছেন। অ্যানাটাং-এর সেসব হাটে কিছু ক্রেতা দেখা গেছে। তবে যেকোনো ধরনের অস্থিরতার আশঙ্কায় নিরাপত্তা বাহিনী কঠোর নজরদারি অব্যাহত রেখেছে।

শুক্রবার (৯ আগস্ট) কাশ্মিরে জুমআর নামাজের পর গণজমায়েতের কথা অস্বীকার করেছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। এছাড়া লাঠিচার্জ ও টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপের কথা অস্বীকার করা হয়েছে। বিবিসিসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম এ নিয়ে খবর ছাপিয়েছিল।

এদিকে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যেসব মিডিয়া কাশ্মির নিয়ে অসত্য ও ভিত্তিহীন খবর ছাপাবে তাদের আইনি নোটিশ পাঠানোর কথা চিন্তা করা হচ্ছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: