বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ভারতীয় বিমানে ‘বোমা হুমকি’, লন্ডনে জরুরি অবতরণ  » «   যেভাবে আরবদের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা হয়ে উঠেছেন এরদোগান  » «   উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় নার্সকে মেরে ফেলল বখাটে  » «   সড়কে নামাজ ঠেকাতে রাস্তায় বসে বিজেপির মন্ত্র পাঠ  » «   খুনির সঙ্গে রিফাতের স্ত্রী মিন্নির ‘সম্পর্কের তথ্য’ ফাঁস  » «   প্রাথমিকের শিক্ষক বদলির নীতিমালায় ফের পরিবর্তন।  » «   রিফাতের হত্যাকারীদের গ্রেফতারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  » «   মুসলিম যুবককে হত্যার ঘটনায় উত্তাল ভারত, বিচারের আশ্বাস দিলেন মোদী  » «   টিম ইন্ডিয়ার কমলা জার্সি নিয়ে চলছে রাজনীতি  » «   ভারতীয় এমপির যে ভাষণে উত্তাল স্যোশাল মিডিয়া  » «   দুই প্রকৌশলীকে পেটালেন আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগ নেতারা  » «   সিলেটে বিদেশী মদসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার  » «   রেল লাইন সংস্কারের দাবিতে শাহবাগে সিলেটি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধবন  » «   আসামে নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়লেন আরও এক লাখ  » «   বিশ্বনাথে ডাকাতের সঙ্গে গোলাগুলি, ৫ পুলিশ গুলিবিদ্ধ  » «  

কুলাউড়ায় মসজিদের আম পাড়তে বাঁধা দেয়ায় হামলা, বৃদ্ধ নিহত



নিউজ ডেস্ক:: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় মসজিদের আম পাড়া পাড়তে বাঁধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় মন্তর মিয়ে (৭০) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। বুধবার (২৯ মে) সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়নের গাজীপুর মাস্টারের দোকান নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মন্তর মিয়া একই এলাকার মৃত আহমদ আলীর ছেলে। এ ঘটনায় বুধবার রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত নারী পুরুষসহ ৬জন আটক করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার ইফতারের পূর্বে উপজেলার জয়চণ্ডী ইউনিয়নের গাজীপুর মাস্টারের দোকান এলাকার একটি মসজিদের গাছের আম পাড়ছিলেন কয়েকজন লোক। এসময় মন্তর মিয়া তাদের আম পাড়তে বাঁধা দেন। এ নিয়ে মন্তর মিয়া সাথে ওই এলাকার লাল মিয়া, রহমান কারী, পাবলু মিয়া, ছালূ মিয়া, ও সিপার মিয়াসহ তাদের বাড়ির নারীদের কথাকাটাকাটি শুরু হয়।

এক পর্যায়ে রহমান কারী, পাবলু মিয়া, ছালূ মিয়া, ও সিপার মিয়াসহ তাদের লোকজন মন্তর মিয়াকে মাটিতে ফেলে লাথি ও কিলঘুষি মারতে থাকেন। এতে ঘটনাস্থলেই মন্তর মিয়া জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে মন্তর মিয়ার ছেলে জাহেদ মিয়া ও স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে এ ঘটনার পর ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে রয়েছে।

নিহতের ছেলে জাহেদ মিয়া বলেন, ‘আমি রাজমিস্ত্রীর কাজ করি। ঘটনার সময় কাজ থেকে এসে বাড়িতে ইফতারের প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। এমন সময় আশেপাশের লোকজনের চিৎকার শুনে দৌঁড়ে এসে দেখি লাল মিয়া, রহমান কারী, পাবলু মিয়া, ছালূ মিয়া, ও সিপার মিয়াদের বেপরোয়া মারধরে আমার বাবা মাটিতে অচেতন পড়ে আছেন।

কুলাউড়া থানার ওসি তদন্ত সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন এ ঘটনায় লাল মিয়াসহ তিনজন পুরুষ ও তিনজন নারীকে আটক করা হয়েছে হয়েছে। বাকিদের ধরতে অভিযান চলছে।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইয়ারদৌস হাসান বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: