মঙ্গলবার, ১৯ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের কুকীর্তি ফাঁস!  » «   মায়ের পছন্দ ব্রাজিল, সমর্থক জয়ও  » «   পুলিশ কমিশনার‘ঈদগাহে ছাতা ও জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু নয়’  » «   ‘আমিও প্রেগনেন্ট হয়েছি, অনেকবার অ্যাবরশনও করিয়েছি’  » «   গুগল পেজ ইরর দেখায় কেন?  » «   রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সিইসি কে কোথায় ঈদ করছেন  » «   ইসি সচিব : তিন সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু ও ধলাই  » «   বিশ্বকাপের একদিন আগে বরখাস্ত স্পেন কোচ!  » «   ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে ৭ কি.মি. যানজট  » «   শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে আলিয়ার সোজা কথা!  » «   যে কারণে ইউনাইটেড হাসপাতালে যেতে চান খালেদা  » «   খালেদা চিকিৎসা চান নাকি রাজনীতি করছেন : সেতুমন্ত্রী  » «   যানজটের কথা শুনিনি, কেউ অভিযোগও করেননি  » «   ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান ‘বকশিসের নামে নীরব চাঁদাবাজি নেই’  » «  

কুলাউড়ায় ‘পাগলা হাতির’ আক্রমণে প্রাণ গেল মাহুতের



মৌলভীবাজার সংবাদদাতা:: মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় হাতির আক্রমণে এবার প্রাণ গেল গণি মিয়া (৫০) নামে এক মাহুতের। শনিবার সকালে কয়েকজন হাতির মাহুত মিলে হাতিটিকে ধরতে গেলে এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসীসূত্রে জানা যায়, জুড়ী উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন মইজনের পোষা হাতিটি কিছু দিন থেকে পাগল হয়ে এলাকায় তাণ্ডব সৃষ্টি করে। এমনকি এই হাতির হিংস্র কবলে পড়ে গত ৩ সেপ্টেম্বর বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে জুড়ী উপজেলার গোয়ালবাড়ী ইউনিয়নের দূর্গম পুটিছড়া এলাকায় মঙ্গল খাড়িয়া (৪৫) নামে এক পথচারী নিহত হন।
এরপরে হাতির মালিক হাতিটিকে ধরে দিতে পারলে অর্ধ লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেন। এ কারণে দফায় দফায় কয়েকজন মাহুত গিয়ে হাতিটিকে বসে আনতে পারেননি। সর্বশেষে আজ শনিবার সকালে কুলাউড়া উপজেলার মেরিনা চা বাগানের ছন টিলা এলাকায় গণি মিয়া ও তার ছেলে সাজুসহ কয়েক মাহুত গিয়ে হাতিটিকে বসে আনার চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে হাতিটি উল্টো তাদের ধাওয়া করে। অন্যরা দৌড়ে পালিয়ে গেলেও শেষ রক্ষা হয়নি গণি মিয়ার। হাতির কবলে পড়ে নির্মমভাবে মারা যান তিনি। পরে পুলিশের সহায়তা নিয়ে কয়েক ঘন্টা প্রচেষ্টায় অন্য মাহুতরা তার লাশ উদ্ধার করেন।
কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম মূসা জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া হাতিটিকে বসে আনতে ঢাকা থেকে বন বিভাগের বিশেষ টিম কুলাউড়ার উদ্যোশে রওনা দিয়েছে। তারা পৌঁছার পর পাগলা হাতিটিকে ধরতে অভিযান চালানো হবে।
মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম জানান, একটা হাতি একাধিক মানুষকে হত্যা করেছে। বিষয়টি মেনে নেওয়া যায় না। আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: