রবিবার, ২০ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লজ্জায় মানুষ না খেয়ে থাকার কথা বলতে পারে না —————————- : মোমিন মেহেদী  » «   রাতে মোবাইল ব্যবহার করলে হয়ে যাবেন অন্ধ!  » «   ৬ মামলার আসামি ইয়াবাসহ গ্রেফতার  » «   সৌন্দর্যের ৫ গোপন রহস্য!  » «   পরকীয়া প্রেমিকসহ চেয়ারম্যান-কন্যা আটক!  » «   হাত-পা বেঁধে আ’লীগ নেতার বাড়িতে ডাকাতি  » «   ছবি আঁকলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   গণভবনে প্রধানমন্ত্রী‘মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান কিন্তু চলছে’  » «   তাসপিয়া হত্যা মামলার আসামি আদনানের বাবার বক্তব্য!  » «   রাজকীয় বিয়েতে রাজকীয় সাজে ছিলেন প্রিয়াঙ্কাও  » «   যে কারণে বাদ ইমরুল-তাসকিন-সোহান  » «   সাইবার অপরাধ : তাৎক্ষণিক বিচার চান অধিকাংশ ভুক্তভোগী  » «   নয়াপল্টনে রিজভী‘কাদেরের বক্তব্য একতরফা নির্বাচনেরই ইঙ্গিতবহ’  » «   রাজীবের হাত বিচ্ছিন্ন : দুই বাসচালকের জামিন নামঞ্জুর  » «   এভারেস্টের চূড়ায় ১৬ বছরের কিশোরী!  » «  

কুনিও হত্যায় ৫ জনের ফাঁসি



 

কুনিও হত্যায় ৫ জনের ফাঁসি

জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি (৬৬) হত্যা মামলায় ৫ জনের ফাঁসির ও একজনের খালাস আদেশ দিয়েছেন আাদালত। রংপুরের বিশেষ জজ আদালতের বিচারক নরেশ চন্দ্র সরকার এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে রংপুরের আদালত এলাকায় কড়া নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়। আর এটিই নব্য জেএমবির জঙ্গিদের বিরুদ্ধে প্রথম রায়।

রায় ঘোষণা উপলক্ষে গতকাল রাত থেকেই আদালত ও সংশ্লিষ্ট এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। আজ সকালে দেখা যায়, আদালতের তিনটি ফটকেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য মোতায়েন রয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ৩ অক্টোবর রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার কাচু আলুটারি গ্রামে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশিকে গুলি করে হত্যা করা হয়। তিনি সে এলাকায় গবাদি পশুর খাদ্য হিসেবে উন্নত মানের ঘাসের চাষ করতেন। ঘটনার দিনই কাউনিয়া থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির নামে হত্যা মামলা করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনাকারী বিশেষ পিপি রথীশ চন্দ্র ভৌমিক জানান, ৬০ কার্যদিবসে ৫৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ হয়েছে। আসামিদের পক্ষে একজন সাফাই সাক্ষ্য দিয়েছেন। ২০ ফেব্রুয়ারি এই মামলার যুক্তিতর্ক শেষ হয়। আজ রায় ঘোষণার দিন ধার্য রয়েছে।

মামলায় আটজনকে আসামি করা হয়। এদের মধ্যে পাঁচজন কারাগারে আসেন। তারা হলেন নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) পীরগাছার আঞ্চলিক কমান্ডার ও উপজেলার পশুয়া টাঙ্গাইলপাড়ার মাসুদ রানা ওরফে মামুন ওরফে মন্ত্রী (২১) ও জেএমবি সদস্য ইছাহাক আলী (২৫), কালীগঞ্জ বাজারের জেএমবি সদস্য আবু সাঈদ (২৮), বগুড়ার গাবতলীর জেএমবি সদস্য লিটন মিয়া ওরফে রফিক (২৩) এবং গাইবান্ধার সাঘাটার হলদিয়ার চরের সাখাওয়াত হোসেন (৩২)।

মামলায় পলাতক আসামি হলেন কুড়িগ্রামের রাজারহাটের মকর রাজমাল্লী এলাকার আহসান উল্লাহ আনসারী ওরফে বিপ্লব (২৪)।

এ মামলার অপর দুই আসামি নজরুল ইসলাম ওরফে হাসান ওরফে বাইক হাসান (২৮) এবং সাদ্দাম হোসেন ওরফে রাহুল ওরফে চঞ্চল ওরফে সবুজ ওরফে রবি (২১) ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: