রবিবার, ২০ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রাজকীয় বিয়েতে রাজকীয় সাজে ছিলেন প্রিয়াঙ্কাও  » «   যে কারণে বাদ ইমরুল-তাসকিন-সোহান  » «   সাইবার অপরাধ : তাৎক্ষণিক বিচার চান অধিকাংশ ভুক্তভোগী  » «   নয়াপল্টনে রিজভী‘কাদেরের বক্তব্য একতরফা নির্বাচনেরই ইঙ্গিতবহ’  » «   রাজীবের হাত বিচ্ছিন্ন : দুই বাসচালকের জামিন নামঞ্জুর  » «   এভারেস্টের চূড়ায় ১৬ বছরের কিশোরী!  » «   ৫ মাদকসেবীর কারাদণ্ড  » «   মির্জাপুরে ‌‌‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছিনতাইকারী নিহত  » «   রেলের টিকিট কালো বাজারে, জেল জরিমানা  » «   চাঞ্চল্যকর সীমা হত্যার আসামি গ্রেফতার  » «   বড়লেখায় সোনাই নদীতে ধরা পড়ল ৪ ফুট লম্বা রাঘব চিতল  » «   ‘বন্দুকযুদ্ধে’ গালকাটা বাবু নিহত  » «   মৌলভীবাজারে শাশুড়িকে কুপিয়ে খুন করেছে জামাতা  » «   আজান সম্প্রচার না করলে লাইসেন্স বাতিলের হুঁশিয়ারি  » «   বিরল রোগে আক্রান্তমুক্তামণির গল্পটা হয়তো শেষের দিকে!  » «  

কিশোরী ধর্ষণের প্রমান মেলায় ২ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র



নিউজ ডেস্ক::সিরাজগঞ্জের তাড়াশে দুই যুবলীগ নেতা কর্তৃক এক কিশোরীকে ধর্ষণের মামলায় তাদেরকে অভিযুক্ত করে আদালতে ৩ মাস পর অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে।

সোমবার সকালে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তাড়াশ থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) সাচ্চু বিশ্বাস সিরাজগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-২, ৩ এ অভিযোগপত্র কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক বাবুল সর্দারের মাধ্যমে দাখিল করেন।

তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনজুর রহমান বিকেলে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, মামলার তদন্ত শেষে ধর্ষণের প্রমাণ মেলায় নওগাঁ ইউনিয়ন যুবলীগের ৬নং ওয়ার্ড সহ-সভাপতি ও উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়নের সাকুয়াদিঘী গ্রামের আবু তালেবের ছেলে আনিছুর রহমান (৩২) ও ইউনিয়ন যুবলীগের তথ্য বিষয়ক সম্পাদক একই গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে মহির উদ্দিন (৩০)কে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আরও জানান, পর্যাপ্ত সাক্ষী প্রমাণের ভিত্তিতে ও মেডিকেল প্রতিবেদনে ওই কিশোরীকে ধর্ষণের সুস্পষ্ট আলামত পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, গত ২২ আগষ্ট মঙ্গলবার বিকালে নাটোর জেলার গুরুদাসপুর উপজেলার রানীগ্রামের এক কিশোরী (১৩) তাড়াশের মান্নাননগর গ্রামের দুলাভাই সুরুজ আলীর বাড়ীতে বেড়াতে আসেন। কিশোরী তার ছোট ভাইকে নিয়ে মান্নাননগর না নেমে ভুল করে মহিষলুটি এলাকায় গাড়ি থেকে নেমে ঘোরাফেরা করছিল। এসময় ওই দুই যুবলীগ নেতা তাদেরকে পথ দেখিয়ে দেওয়ার কথা বলে মহিষলুটি বিদ্যাধর এলাকায় নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনার পর ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ও টহল পুলিশের সদস্যরা ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

পরে ধর্ষিতা কিশোরী নওগাঁ ইউনিয়ন যুবলীগের ৬নং ওয়ার্ড সহ-সভাপতি ও উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়নের সাকুয়াদিঘী গ্রামের আবু তালেবের ছেলে আনিছুর রহমান (৩২) ও ইউনিয়ন যুবলীগের তথ্য বিষয়ক সম্পাদক একই গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে মহির উদ্দিন(৩০) অভিযুক্ত করে ২৩ আগষ্ট সকালে মামলা দায়ের করেন।

ওইদিনই থানা পুলিশ দুই যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেন। পরে যুবলীগ থেকে তাদেরকে বহিষ্কার করা হয়। বর্তমানে ওই দুই যুবলীগ নেতা জামিনে মুক্ত রয়েছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: