বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

কাশ্মীরের অসহায় মুসলমানদের পাশে দাঁড়ানো সকল মুসলমানদের নৈতিক দায়িত্ব: মেয়র আরিফ



নিউজ ডেস্ক:: কাশ্মীরে ভারতীয় আগ্রাসনের প্রতিবাদে হিউম্যানিটি মুভমেন্ট অব বাংলাদেশের উদ্যোগে শুক্রবার (৯ আগস্ট) বাদ জুমআ বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে স্থানীয় সিটি পয়েন্টে গিয়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

হিউম্যানিটি মুভমেন্ট অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মাওলানা সৈয়দ মুসাদ্দিক আহমদের সভাপতিত্বে, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল হাই আল হাদী ও সেক্রেটারী খলিলুল্লাহ মাহবুবের যৌথ পরিচালনায় মিছিল পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন- জামেয়া দারুল কোরআন সিলেটের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল সাবেক এমপি এডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জামেয়া দারুল উলুম সিলেটের প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, হিন্দুত্ববাদী মোদি সরকার সাংবিধাদের ৩৭০ ধারা বাতিল করে কাশ্মীরীদের অধিকার হরন করেছে। রাজ্য প্রধানদের গ্রেফতার করে পর্যটকদের সরিয়ে অতিরিক্ত বাহিনী মোতায়েন করে তাঁরা ক্লান্ত হয়নি। ১৪৪ ধারা জারী করে ইন্টারনেট পর্যন্ত বন্ধ করেছে। তাই কাশ্মীরের অসহায় মুসলমানদের পাশে দাঁড়ানো সকল মুসলমানদের নৈতিক দায়িত্ব।

মেয়র বলেন, বিজেপি সরকার প্রতিনিয়ত তাঁদের উপর অত্যাচার করছে। এসবের শেষ চাই। চাই কাশ্মীরের স্বাধীনতা। চাই আমাদের ভাই বোনের নিরাপত্তা, বেঁচে থাকার অধিকার। নেতৃবৃন্দ জাতীসংঘের নিরব ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। ভারত মুসলমানদের সহ্য করতে পারছে না, তাই তারা মুসলিম শূণ্য করতেই এধরণের নির্যাতনে পথ বেছে নিয়েছে। ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে বিনা উস্কানীতে মুসলিম নিধন, নির্যাতন, ধর্ষণ করছে কট্টরপন্থি হিন্দু সম্প্রদায়ের সন্ত্রাসী ও জঙ্গীরা।’ কাশ্মীরে আগ্রাসন মুসলিমবিশ্বকে স্তব্ধ করে রেখেছে।

অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- হিউম্যানিটি মুভমেন্ট অব বাংলাদেশের উপদেষ্টা আহমেদুর রহমান খান হিনু, মাদানী কাফেলা বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, জামেয়া নাজাতুল উম্মাহর মুহতামিম মাওলানা তোফায়েল আহমদ উসমানী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাওলানা সদরুল আমিন, জামেয়া দারুল উলুম সিলেটের শিক্ষা সচিব মাওলানা এম বেলাল আহমদ চৌধুরী, মাওলানা এরশাদ খান আল হাবিব, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাফিজ সাব্বির আহমদ রাজি, হাফিজ কবির আহমদ, হাফিজ শাহিদ হাতিমী, কায়ছার মাহমুদ আকবরী, জাফর ইকবাল, আবু বক্কর সিদ্দিক, মুহাফিজুল ইসলাম সাকিব, সাজ্জাদ হোসেন রুমন, সালমান আহমদ, তাজুল ইসলাম, তামিম আহমদ, মারুফ আহমদ, শাহ আলম, ইউসুফ আল আজাদ, রিয়াজ উদ্দিন, নাইম আহমদ প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: