সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «   ভাওতাবাজির জন্য সরকারকে গোল্ড মেডেল দেওয়া উচিৎ: ড. কামাল  » «   দিল্লির লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানের!  » «   সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল  » «  

কারাবন্দি বাবাকে দেখতে এসে শিশু খুন!



নিউজ ডেস্ক::শাহজাহান মিয়া, মাদকের মামলায় ৮ বছরের সাজা প্রাপ্ত। ৩ বছর ধরে ভোগ করছেন সাজা। মাঝে মধ্যে শাহজাহনের স্ত্রী রিনা আক্তার দেখতে আসেন তাকে। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (৮ মার্চ) শিশু জোবায়েদকে (৬) নিয়ে ওঠেন বোনের বাসায়।

এরপর ওইদিনই বিকেলে খেলতে বের হয়ে আর ফিরে আসেনা জোবায়েদ। পরে শনিবার (১০ মার্চ) সকাল ১০টার দিকে নগরীর একটি খাল থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার বিকালে বন্দর থানার গোসাইলডাঙ্গার আত্মীয়ের বাসা থেকে শিশুটি নিখোঁজ হয়। বাসা থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে খাল থেকে লাশ উদ্ধার হওয়ার ঘটনাকে হত্যাকাণ্ড বলে সন্দেহ করছে পুলিশ। পরকীয়া বা অন্য কোনো কারণে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে কিনা সে বিষয়টি তদন্ত করছে পুলিশ।

জোবায়েদকে না পেয়ে শুক্রবার সকাল থেকে এলাকায় মাইকিং করা হয়। রাতে বন্দর থানায় জিডি করেন শিশুর খালা।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে গোসাইলডাঙ্গার বাসা থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে সিমেন্ট ক্রসিং এলাকার মহেশখাল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। শিশুটির নাকে-মুখে রক্তের ছাপ রয়েছে।

জোবায়েদের চাচা শহিদ বলেন, কারো প্রতি কোনো অভিযোগ নেই। ময়দনাতদন্ত ছাড়াই লাশ নিয়ে যেতে চাই। ময়নাতদন্ত করে আর কি হবে।

পুলিশ বলছে, এটা যে হত্যাকাণ্ড সেটা নিশ্চিত। কারণ বাসার কাছে কোনো খাল নেই। শিশুটিকে অপহরণের পর হত্যা করে লাশ দূরে ফেলে দেয়া হয়েছে। রোববার (১১ মার্চ) লাশের তদন্ত করা হবে।

উল্লেখ্য, স্বামীকে দেখার কথা বলে ১ মার্চ চট্টগ্রাম এসেছিলেন রিনা। এক সপ্তাহ না যেতে তিনি একই কথা বলে আবার চট্টগ্রাম এসেছেন। এছাড়া শিশুটির নিখোঁজ হওয়ার আগে-পরে দু’দিনে রিনার সঙ্গে তার ভাসুর শহিদের অন্তত ৫০০ বার মোবাইল ফোনে কথা হয়েছে। রিনা ও শহিদের মধ্যে পরকীয়ার সম্পর্ক থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: