সোমবার, ১১ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বাবরি মসজিদের রায় দিল যৌন কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত বিচারপতি!  » «   মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা  » «   ভারতে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার মুহম্মদ ইমরান  » «   সুলতান মনসুর বেইমান মুনাফিক : মিসবাহ সিরাজ  » «   স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে গেলেন মেয়র, ভয়ে চুপ স্বামী  » «   বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেছে জেলা যুবলীগ  » «   পাকিস্তানের জাদুঘরে অভিনন্দনের মূর্তি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়  » «   ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে তছনছ সাকিবের কাঁকড়ার খামার  » «   টিউলিপের প্রচারণায় লন্ডনের দুয়ারে দুয়ারে সিলেটিরা  » «   বসন্তের কোকিলদের দলে ভেড়াবেন না: ওবায়দুল কাদের  » «   ১৫ বছর পর পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আনছে বাংলাদেশ  » «   দেশকে এবারও বাঁচিয়ে দিলো সুন্দরবন  » «   ঘূর্ণিঝড়ে ৫ হাজার ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত, নিহত ২ : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী  » «   রিফাত শরিফ হত্যাকাণ্ড: বেরিয়ে এসেছে নতুন তথ্য  » «   ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড খুলনা, নিহত ১  » «  

কানাইঘাট পৌর শহরে দু’গ্রামবাসীর ধাওয়া ধাওয়িতে আহত ১০



download (2)নিউজ ডেস্ক :: কানাইঘাট পৌর শহরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ডালাইচর ও কুওরঘড়ি গ্রামের লোকজনদের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পৌর শহরের উপজেলা রোডে কুওরঘড়ি গ্রামের মৃত আব্দুল মালিকের পুত্র জেনারেটর ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিন (৩২) এর সাথে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ডালাইচর গ্রামের নুরুল হকের পুত্র উপজেলা রোডের ব্যবসায়ী আমিন উদ্দিনের কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে দুজনের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।

একপর্যায়ে কুওরঘড়ী গ্রামের কিছু লোক আমিন উদ্দিনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে এবং তার বসত বাড়ীতে হামলার চেষ্টা করে। এতে ডালাইচর গ্রামে লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে তারা পাল্টা উপজেলা রোডে অবস্থিত রিয়াজ উদ্দিনের জেনারেটরের দোকানে হামলা চালিয়ে জেনারেটর পুড়িয়ে দেয়। পরে উভয় পক্ষ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে পৌর শহরে মহড়া দিলে সংঘর্ষের ভয়ে ব্যবসায়ীরা দোকান পাট বন্ধ করে দেন। খবর পেয়ে কানাইঘাট থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রথমে কুওরঘড়ী গ্রামের লোকজনকে পৌর শহর থেকে বের করে ডাক বাংলা দিয়ে বের করে দেয়। ডালাইচর গ্রামের লোকজন পৌর শহরে পাল্টা মহড়া দিলে কানাইঘাট থানার ওসি আব্দুল আউয়াল চৌধুরী তাদের শান্ত করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হন। ডালাইচর গ্রামের লোকজন জানিয়েছেন,কুওরঘড়ী গ্রামের ইউপি সদস্য দুদু মিয়ার নেতৃত্বে তাদের গ্রামের ব্যবসায়ী আমিন উদ্দিনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালানো হয়।

অপরদিকে কুওরঘড়ী গ্রামের লোকজন জানিয়েছেন, ডালাইচর গ্রামের লোকজন প্রথমে কোন কারণ ছাড়াই তাদের গ্রামের জেনারেটর ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিনের উপর হামলা চালিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে তাদের উপরও হামলা করা হয়। এতে তাদের গ্রামের ৬ জন আহত হন এবং পৌর শহরে অবস্থিত কুওরঘড়ী গ্রামে দু’টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা করে। এ ব্যাপারে কানাইঘাট থানার ওসি আব্দুল আউয়াল চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ডালাইচর ও কুওরঘড়ী গ্রামের লোকজনের মধ্যে বৃহস্পতিবার রাত অপ্রীতিকর ঘটনার পর বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: