বুধবার, ১৫ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
১৫ আগস্ট কেন ভারতের স্বাধীনতা দিবস?  » «   খালেদার জন্মদিনে ফখরুল‘প্রাণ বাজি রেখে লড়াই করতে হবে’  » «   রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু  » «   ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট  » «   ঢাকায় ইলিশের কেজি মাত্র ৪০০ টাকা!  » «   অস্ট্রেলিয়ান সিনেটে প্রথম মুসলিম নারী  » «   প্রধানমন্ত্রী নয়, ইসির নির্দেশনায় চলবে প্রশাসন : নাসিম  » «   সৌদি আরবে আরও ৫ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু  » «   মৃত পুরুষকে বিয়ে করলেন নারী, এরপর…  » «   যা করবেন সন্তানকে বুদ্ধিমান ও চটপটে বানাতে  » «   নিউইয়র্কে লাঞ্ছিত ইমরান এইচ সরকার  » «   কুরবানির গোশত অন্য ধর্মাবলম্বীকে দেওয়া যাবে?  » «   শাহরুখের গাড়ি-বাড়ি ও ঘড়ির দাম এত?  » «   ভ্যান চালিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নামে জমি, এরপর…  » «   মোবাইল ফোনে নতুন কলচার্জ নিয়ে যা বলছেন গ্রাহকরা  » «  

কাতারে নিহত বড়লেখার আতিকুরের দাফন



বড়লেখা প্রতিনিধি:: কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার আতিকুর রহমানের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০৩ মে) রাতে উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের নান্দুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে তাঁর লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। তাঁর অকাল মৃত্যুতে পরিবার ও এলাকায় শোকের ছায়া নেমেছে।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের শ্রীধরপুর গ্রামের মৃত মস্তুফা উদ্দিনের ছেলে আতিকুর রহমান (২৬) জীবিকার তাগিদে প্রায় ৬ মাস আগে কাতারে যান। সেখানে তিনি একটি রেস্টুরেন্টে কাজ করতেন। গত ২৬ এপ্রিল স্থানীয় সময় বিকেলে পাঁচটায় রেস্টুরেন্টে অর্ডার দেওয়া খাবার একটি বাসায় পৌঁছে দিতে তিনি মোটরসাইকেলযোগে আলওয়াকরা নামকস্থানে যাচ্ছিলেন। এসময় দ্রুত গতির একটি ট্রাক তাঁকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আহতবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে মারা যাওয়ার প্রায় সাতদিন পর বৃহস্পতিবার সকালে কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে আতিকুরের লাশ শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়। সেখান থেকে স্বজনরা তাঁর লাশ গ্রহণ করে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। লাশ বাড়িতে আনার পর তাকে শেষবারের মতো দেখতে ভিড় জমান প্রতিবেশীরা। এসময় স্বজনসহ প্রতিবেশীরা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: